২০৩৫ সাল থেকে মঙ্গল গ্রহে বসবাস শুরু হচ্ছে মানুশের

1
398

যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা জানিয়েছে, ২০৩৫ সালের মধ্যে মানুষ মঙ্গল গ্রহে বসবাস করতে পারবে। তবে এ ক্ষেত্রে বিশ্ববাসীর সাহায্য প্রয়োজন বলেও উল্লেখ করেছে সংস্থাটি। খবর ডেইলি মেইলের।

নাসার প্রধান বিজ্ঞানী ড. অ্যালেন স্টোফেন জানান, আগামী দুই দশকের মধ্যে লাল গ্রহটিতে মানুষের বসবাসের জন্য ঘরবাড়ি নির্মাণসহ যাবতীয় কার্যক্রম সম্পন্ন করা সম্ভব হবে। যুক্তরাজ্যে বেশ কয়েক দফা আলোচনার পর তিনি এ কথা জানান।
বিজ্ঞান ২০৩৫ সাল থেকে মঙ্গল গ্রহে বসবাস শুরু হচ্ছে মানুশের

তিনি জানান, মঙ্গল গ্রহে লোক পাঠানোর ব্যাপারে বিগত বছরগুলোতে নাসা বেশ উন্নতি করেছে। এর মধ্যে মঙ্গলে পরিবহনযোগ্য রকেট ও ওরিয়ন ক্যাপসুল অন্যতম।

মঙ্গল গ্রহে মানুষের বসবাস নিশ্চিত করা নাসার ‘প্রাথমিক লক্ষ্য’ বলেও জানান ড. স্টোফেন। এজন্য নাসার প্রযুক্তি প্রস্তুত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

গ্রহটিতে মানুষের বসবাসের জন্য ২০৩৫ সালকে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এ লক্ষ্যকে সফল করতে বিশ্বের অন্যান্য দেশ ও এজেন্সিগুলোর সহযোগিতা দরকার বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, এর আগে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান জানিয়েছিল তারা ২০২৫ সাল নাগাদ মঙ্গলে মনুষ্য বসবাস উপযোগী জমি বিক্রি করবে।

এর আগেও নাসা বেশ কয়েকবার মঙ্গল গ্রহে মানুষ বসবাসের আশাবাদ ব্যক্ত করেছিল। তবে সেখানে প্রাণের অস্তিত্ব থাকতে পারে বলে জানালেও এখন পর্যন্ত গ্রহটিতে কোনো প্রাণীর সন্ধান পায়নি সংস্থাটি। এমনকি জীবন-ধারণের উপযোগী কোনো উপাদানেরও সন্ধান পাওয়া যায়নি।

1 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ