জিএসএমএ এর সদস্য হচ্ছে বিডাবলিএ লাইসেন্স।

0
256

বাংলাদেশী আইএসপি সেবা প্রদানকারী বাংলাদেশ ইন্টারনেট এক্সচেঞ্জ লিমিটেড (বিআইইএল) , ঢাকায় ওলো ব্র্যান্ড এর অধীনে কাজ করছে, যা এখন জিএসএম* এর সদস্য হতে চলেছে।

(বি আই ই এল) সম্প্রতি বিডাবলিএ লাইসেন্স অর্জন করছে এবং এলটিই এর মান এর উপর ভিত্তি করে সেবা প্রদানের জন্য পরিকল্পনা করছে, যা সর্বচ্চ উন্নত এক্সেস প্রযুক্তি। বর্তমানে মোবাইল ওয়্যারলেস বাজার এলটিই প্রযুক্তির মাধ্যমে প্রযুক্তিগতভাবে গর্জনের সাথে প্রতিপালিত হচ্ছে। এলটিই – লং টার্ম বিবর্তন যা মোবাইল ওয়্যারলেস এক্সেস প্রযুক্তি বর্তমান ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের জন্য উচ্চতর তথ্য সেবা নিশ্চিত করে । নিচের চিত্রটি দিয়ে পরিলক্ষিত হচ্ছে যে এল টিই নেটওয়ার্কের সংখ্যা বিশ্বব্যাপী কতটা দ্রুত বাড়ছে:

Untitled জিএসএমএ এর সদস্য  হচ্ছে বিডাবলিএ  লাইসেন্স।

২০১৪ সালের এপ্রিল মাসে সকল সাংবাদিক এবং বিপণন স্টেকহোল্ডারদের সাথে 100 এমবি পিএস মাত্রার এলটিই পাইলট জোন প্রদর্শিত করে বিআইইএল । এলটিই ব্যবহারকারীদের বিভিন্ন ধরনের ডিভাইসের মাধ্যমে চমকপ্রদ ফলাফল দেখানো হয়। যেমন অ্যাপল স্যামসাং এর স্মার্টফোন, জেড টি ই, অ্যাপল এবং স্যামসাং এর বিভিন্ন ধরনের ট্যাব, ইওটা ডিভাইস, ডংগল,মাই-ফাই রাউটার, ইনডোর ছিপিই ইত্যাদি।
জিএসএম এ সদস্যপদ বিআইইএল এর জন্য বৃহৎ তথ্য ডাটাবেইস, পরিসংখ্যানক্রিত তথ্য ও প্রবনতার দিকে দুয়ার খুলে দিয়েছে । এরকম একটি মূল্যবান তথ্যের উৎস বিআইইএল এর জন্য বিপনন সেবা ও কৌশল সম্পর্কে যথাযত সম্ভাবনা সম্প্রসারিত করবে এবং এলটিই এর উপর ভিত্তি করে বাংলাদেশীদের অতি দ্রত মোবাইল ব্রডব্যান্ড সেবার দেওয়ার নিশ্চয়তা প্রদান করবে । এছাড়া জিএসএম সদস্যপদ আন্তর্জাতিক রোমিং প্রতিষ্ঠাতেও বি আইইএলকে সহায়তা করবে।

*জিএসএম এসোসিএশোন হচ্ছে মোবাইল অপারেটর এবং সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান গুলর একটি সংস্থান যা জিএসএম মোবাইল টেলিফোন সিস্টেম 3জি এইচএসডিপিএ এবং এলটিই প্রযুক্তিতে বিবর্তনের আদর্শকরন, যা নিয়োজন এবং উন্নয়নে সহায়তা প্রদান করে থাকে।
জিএসএম ২২০টির ও বেশি দেশ জুড়ে রয়েছে যা বিশ্বের প্রায় ৮০০ টি মোবাইল অপারেটর এবং বৃহত্তর মোবাইল ইকো সিস্টেম এর ২০০ টির বেশি প্রতিষ্ঠানকে একত্রিত করেছে। এগুলোর মধ্যে রয়েছে হ্যান্ডসেট প্রস্ততকারক, সফটওয়্যার কম্পানী, সরঞ্জাম প্রদানকারী, ইন্টারনেট কম্পানী এবং গণমাধ্যম ও বিনোদন প্রতিষ্ঠানগুলো।

একটি উত্তর ত্যাগ