তার ছাড়াই চার্জ করতে পারবেন আপনার মোবাইল ফোন

0
369

এখন থেকে ইলেক্ট্রিক তার ছাড়াই চার্জ করতে পারবেন আপনার মোবাইল ফোন, ল্যাপটপ কিংবা অন্য সব বৈদ্যুতিক যন্ত্র। তাও আবার যখন খুশি, যেখানে খুশি। বাসার টিভি, ফ্রিজ, কম্পিউটার, প্রিন্টারও বাদ যাবে না এই প্রযুক্তি থেকে।

কোনো কিছুই চার্জ করতে বা পাওয়ার লাইন দিতে ইলেক্ট্রিক ক্যাবলের প্রয়োজন পড়বে না।

এই অসাধ্য করতে চলেছে WiTricity নামের একটি কোম্পানি। ২০০৭ সালে MIT এর কয়েকজন বিজ্ঞানীদের সমন্বয়ে গঠিত এই কোম্পানিটি তারবিহীন ইলেক্ট্রিসিটি পরিবহনের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে গেছে। বর্তমানে এর উন্নয়নের কাজ চলছে।

শুনতে খুব সহজ মনে হলেও পুরো ব্যাপারটি কিন্তু খুবই জটিল। MIT এর বিজ্ঞানীরা দেখান, দুইটি ডিভাইসের সমন্বয়ের গঠিত একটি সমন্বিত ম্যাগনেটিক ফিল্ডের সাহায্যে এক ডিভাইস থেকে আরেক ডিভাইসে ইলেক্ট্রিসিটি কাছাকাছি দূর থেকে আদান প্রদান করা যায়।

২০০৯ সালে Technology Entertainment and Design (TED) এর এক কনফারেন্সে সর্বপ্রথম তারবিহীন প্রযুক্তির জনসমক্ষে দেখানো হয়।

আমরা যে চার্জার ব্যবহার করে থাকি সেগুলো তড়িৎচুম্বকীয় তরঙ্গ দিয়ে ইলেক্ট্রিক শক্তি পাঠায়। কিন্তু WiTricity device গুলো চুম্বকীয় তরঙ্গ দিয়ে ইলেক্ট্রিক শক্তি পাঠায়। এই চুম্বকীয় তরঙ্গ এতোই শক্তিশালী যে ইটের দেয়ালকেও ভেদ করতে পারে। ফলে দূরের যে কোনো ডিভাইসকেও শক্তি পাঠাতে সক্ষম এটি।

MIT দাবী করছে ২০১৫ সালের মধ্যে একটা ডিভাইসের ইলেক্ট্রিক শক্তি দিয়ে একটা পুরো বাড়িকে পাওয়ার সাপ্লাই করা যাবে। এর ফলে আপনি আপনার ল্যাপটপ থেকে অন্য রুমে থাকা মোবাইল ফোনকে চার্জ করতে পারবেন।

তারা এটাও দাবী করেছেন যে, সেদিন বেশি দূরে নয় যেদিন ইলেক্ট্রিক শক্তিচালিত গাড়িগুলি রাস্তায় চলতে চলতে এবং উড়োজাহাজ আকাশে উড়ন্ত অবস্থায়ই চার্জ হবে!

একটি উত্তর ত্যাগ