মোবাইলে নেট ব্রাউজ করছেন কিন্তু মোবাইলের উপরে ‘E’ কিংবা ‘H’ লেখাটা কি লক্ষ্য করেছেন?

0
349

মনে প্রশ্ন জাগে না,কেনইবা ‘E’ অথবা ‘H’ লেখা থাকে???

বিস্তারিত:

মোবাইলে ইন্টারনেট ব্রাউজ করার সময় আপনার পার্শ্ববর্তী নেটওয়ার্ক-এর উপর নির্ভর করে G, E, 3G, H, H+, LTE উঠে থাকে।
এগুলো সবই নেটওয়ার্ক-এর সংস্করণ।

G অর্থ GPRS
আপনার মোবাইল স্ক্রিনে যদি ‘G’ লেখা উঠে থাকে তবে আপনি ইন্টারনেটের সর্বনিম্ন কোয়ালিটি ইউজ করছেন
অর্থাত এক্ষেত্রে আপনার নেট স্পিড থাকবে খুবই কম।

E অর্থ EDGE
যদি E লেখা থাকে তার মানে আপনি GPRS এর চেয়ে ভালো কোয়ালিটির ইন্টারনেট ব্যবহার করছেন।
এটিই মূলত 2G ইন্টারনেট।
বাংলাদেশের প্রায় সব এলাকাই EDGE কাভারেজ সম্পন্ন।

3G হল GPRS এবং EDGE এর চেয়ে দ্রুত গতির ইন্টারনেট সংস্করণ।
3G = 3rd Generation
বাংলাদেশে 3G চালু হলেও মোবাইল অপারেটরগুলা এর চেয়ে উন্নত সংস্করণের ইন্টারনেট চালু করেছে।
যার কারণে 3G কাভারেজ এলাকায় নেট ব্রাউজ করলে মোবাইল স্ক্রিনে H অথবা H+ উঠে।
H = 3.5G
H+ = 3.9G

3G/3.G+ এর চেয়ে দ্রুত গতির ইন্টারনেট হল LTE বা 4G যা আমাদের দেশে বাণিজ্যিকভাবে এখনও চালু হয়নি।
LTE= Long Term Evolution

বাংলালায়নসহ অন্যান্য ওয়াইম্যাক্স কোম্পানিগুলো LTE চালু করতে চাচ্ছে কিন্তু নরমাল মোবাইল অপারেটর গুলোর কারনে তা সম্ভব হচ্ছেনা বলে জানা গেছে।

সারা বাংলাদেশে 3G পৌঁছার এবং LTE চালু হওয়ার আশায়..

একটি উত্তর ত্যাগ