বিনামূল্যে কথা বলুন পৃথিবীর যেকোন মোবাইলে!!!

2
1067

(১) আপনি কি WLAN, 3G, EDGE ইত্যাদি সাপোর্ট করে এইরকম একটা স্মার্ট ফোনের মালিক?
(২ক) আপনার ফোনে কি আনলিমিটেড ইন্টারনেট ব্রাউজিং সুবিধা আছে?
(২খ) আপনি কি বেশিরভাগ সময় ইন্টারনেটে সংযুক্ত একটা ওয়্যারলেস এক্সেস পয়েন্টের সীমানার মধ্যে থাকেন?

১ এবং ২ক অথবা ২খ এর উত্তর যদি হ্যাঁ হয় তাহলে এই লেখার শিরোনামটা আপনার জন্য ১০০% সত্য। কিভাবে এটা সম্ভব করবেন তা নিয়েই এই লেখা। আমরা জানি VOIP’র মাধ্যমে পৃথিবীর যেকোন প্রান্তে কথা বলা যায়। অনেক কোম্পানী আছে যারা বিনামূল্যে এই সেবা দিয়ে থাকে। তবে তা শুধুমাত্র তাদের মেসেঞ্জার ব্যবহারকারীদের জন্য। এই রকম একটি মেসেঞ্জার হল fring। একজন fring ব্যবহারকারী তার মোবাইল থেকে পৃথিবীর যেকোন প্রান্তের অপর fring ব্যবহারকারীর মোবাইলে ফ্রি কল করতে পারবে। কল ছাড়াও চ্যাট, ছবি বা ফাইল ট্রান্সফার ইত্যাদি ও করতে পারবেন এই মেসেঞ্জারের সাহায্যে।

আরো চমকপ্রদ তথ্য হল, fring ব্যবহার করে আপনি Skype, MSN Messenger, Google Talk, ICQ, SIP, Twitter, Yahoo!, AIM ইত্যাদি ব্যবহারকারীদের সাথে কল/চ্যাট করতে পারবেন(Yahoo! এবং AIM এর জন্য কল সুবিধা এখনো যুক্ত করা হয়নি)। লেখার শুরুতে প্রশ্নগুলো করা হয়েছে কারণ কল/চ্যাট ট্রান্সফার হবে ইন্টারনেটের মাধ্যমে। যারা আনলিমিটেড ইন্টারনেট ব্রাউজিং প্যাকেজ ব্যবহার করেন না তাদের ক্ষেত্রে কল/চ্যাটের সময় প্রতিকিলোবাইট হারে চার্জ কাটা যাবে। তাই তাদের ক্ষেত্রে এই সার্ভিসটা একদম ফ্রি বলা যাবে না। অনেক অফিসে ওয়্যারলেস এক্সেস পয়েন্ট ব্যবহার করা হয় ল্যাপটপ থেকে ইন্টারনেট ব্রাউজ করার জন্য। সেই ক্ষেত্রে আপনার ফোনে যদি WLAN সাপোর্ট থাকে তাহলে আনলিমিটেড ইন্টারনেট ব্রাউজিং প্যাকেজ ব্যবহার না করলেও fring ব্যবহার করতে পারবেন ওয়্যারলেস এক্সেস পয়েন্টের সাথে কানেক্ট হয়ে। বিস্তারিত জানতে এবং fring ইনস্টল করার জন্য ভিজিট করুন এই লিংকে

2 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ