অ্যান্ড্রয়েড ফোনের ই-বুক রিডার অ্যাপ

1
514
অ্যান্ড্রয়েড ফোনের ই-বুক রিডার অ্যাপপ্রযুক্তির বিবর্তনে আমরা এখন মোবাইল ডিভাইস বা ট্যাবলেট কম্পিউটারে ডিজিটাল ফরম্যাটে বই পড়ি। ২০১০ সালে আইপ্যাডের আবির্ভাবের পর ট্যাবলেট কম্পিউটারের জনপ্রিয়তা বাড়ে এবং স্যামসাং, অ্যামাজন, এইচটিসি, মটোরোলা, সনি ইত্যাদি কোম্পানি তাদের ট্যাবলেট কম্পিউটারের রেঞ্জগুলো সমৃদ্ধ করে যাদের অন্যতম ব্যবহার হয় বই পড়ার জন্যে। অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম বেশ কিছু ইবুক ফরম্যাট সাপোর্ট করে বলে দিনে দিনে মোবাইলে ই-বুক পড়ার চলন বাড়ছে।

ই-বুক ফরম্যাট:

বিভিন্ন কোম্পানী তাদের নিজস্ব ফরম্যাটে ই-বুক প্রকাশ করে জনপ্রিয় করার চেষ্টা করেছে। তবে এর ফলে স্ট্যান্ডার্ড তৈরি হয়নি। ১৯৯০ সালে একটি কনসোর্টিয়াম ওপেন ই-বুক নামে একটি ফরম্যাট জনপ্রিয় করার চেষ্টা করে। পরে গুগল বুকস নামে একটি ফরম্যাট ব্যবহার করা শুরু করে গুগল এবং অনেক পাবলিক ডোমেইনের বই এই ফরম্যাটে রূপান্তর করে অনলাইনে ছেড়ে দেয়। নীচের টেবিলে বিভিন্ন রিডারে কোন কোন ফরম্যাট সাপোর্ট করে তা দেখানো হয়েছেঃ

অ্যান্ড্রয়েড ফোনের ই-বুক রিডার অ্যাপ

উপরের টেবিলে দেখা যাচ্ছে যে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম কি কি ফরম্যাট সাপোর্ট করে।

ই-বুক রিডার অ্যাপস:

আপনারা নিশ্চয়ই জনপ্রিয় ই-বুক রিডার আমাজনের কিন্ডল বা বার্নস এন্ড নোবলসের নুক ইত্যাদির নাম শুনেছেন। এখন কিন্তু তাদের ই-বুক রিডার ডিভাইস না কিনেও তাদের ব্যবন্থাপনায় বিক্রি এবং বিনামূল্যে বিতরণকৃত হাজারো বই পড়তে পারবেন আপনার অ্যান্ড্রয়েড ফোন বা ট্যাবলেটের সাহায্যে। তবে বাংলাদেশে এসব ব্যবহারে কিছু সীমাবদ্ধতা আছে। গুগল বুকস, কিন্ডল বা নুক এখনও বাংলাদেশের জন্যে উন্মুক্ত নয়। তবে বেশ কিছু ভাল বুক রিডার আছে যার থেকে আপনার পছন্দেরটি বেছে নিতে পারবেন।

কিন্ডল:

স্বল্পমূল্যের অ্যামাজন কিন্ডল বুক রিডার এর জনপ্রিয়তার কারনে কিন্ডল অ্যাপস ও অ্যান্ড্রয়েড প্রেমীদের অনেকের পছন্দ। কিন্ডল ফায়ার রিডারের প্রায় সব সুবিধাই আপনারা এই অ্যাপ্লিকেশনে পাবেন। বিপুল সংখ্যক বইয়ের পাশাপাশি এতে পাবেন সংবাদপত্র ও ম্যাগাজিন। উল্লেখযোগ্য ফিচারের মধ্যে আছে বিল্ট-ইন ডিকশনারী, গুগল সার্চ এবং উইকিপিডিয়া অ্যাক্সেস।
গুগল প্লে স্টোর লিংকঃ কিন্ডল

গুগল বুকস:

অনলাইনে পর্বতসম গুগলের রয়েছে নিজস্ব গুগল বুকস অ্যাপ। প্রায় ত্রিশ লাখ ই-বুক রয়েছে তাদের ডেটাবেসে। তাদের রয়েছে প্রচুর স্বত্ববিহীন বই যা বিনামূল্যে নামিয়ে পড়া যায়।
গুগল প্লে স্টোর লিংকঃ গুগল বুকস

নুক:

অ্যান্ড্রয়েড ফোনের ই-বুক রিডার অ্যাপ

বার্নস এন্ড নোবল কিন্ডলের পদাঙ্ক অনুসরণ করে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে তাদের নুক ই-রিডারের সুবিধা দিচ্ছে। তাদের রয়েছে প্রায় ২০ লাখ বইয়ের সম্ভার।
গুগল প্লে স্টোর লিংকঃ নুক

কোবো:

যদি আপনি বিনামূল্যে বই পড়তে চান তবে কোবো হবে আপনার প্রথম পছন্দ। প্রায় দশলাখের বেশী বই বিক্রি করলেও এদের বিনামূল্যে দেয়া বইয়ের সংখ্যা ১৮ লাখের উপর। এর উল্লেখযোগ্য ফিচার হচ্ছে রিডিং লাইফ নামে একটি ফিচার যা আপনার বই পড়ার উপাত্ত রাখবে এবং তা সামাজিক মিডিয়াতে যেমন ফেইসবুকে প্রচার করা যাবে। উল্লেখযোগ্য উক্তি বা বই থেকে উদ্ধৃতি সহজেই ফেইসবুক স্ট্যাটাসে শেয়ার করা যায়।
গুগল প্লে স্টোর লিংকঃ কোবো

ওয়াটপ্যাড:

ওয়াটপ্যাড সাধারণ ই-বুক রিডার অ্যাপ নয়। এটি হচ্ছে লাখেরও বেশি ডিজিটাল বইয়ের একটি আর্কাইভ যা বিভিন্ন অপেশাদারী লেখক লিখেছেন এবং তা বিনামূল্যে প্রকাশিত হচ্ছে।
গুগল প্লে স্টোর লিংকঃ ওয়াটপ্যাড

ইক্যারেল:

তথ্য-প্রযুক্তিবিদদের পছন্দ এই অ্যাপটি কারন এতে পাবেন প্রোগ্রামিং এবং অন্যান্য প্রযুক্তি নিয়ে ই-বুক।
গুগল প্লে স্টোর লিংকঃ ইক্যারেল

1 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ