যেভাবে গুজব ছড়িয়ে পড়ে আপনার চারপাশে

0
692
যেভাবে গুজব ছড়িয়ে পড়ে আপনার চারপাশে

ronykhan ron

নিজের সম্পর্কে তেমন কিছু বলার নাই । আসলে আমি নিজেই এখনো নিজেকে ভালো করে জানার চেষ্টায় আছি প্রতিনিয়ত । সব কিছু সম্পর্কে ব্যাপক কৌতুহল কাজ করে সব সময় । সেই কৌতুহল কাজ করা থেকেই মাঝে মাঝে কিছু একটা লেখার চেষ্টা করি । তবে সেই সব লেখার মান তেমন ভালো কোন সময়ই হয়তো হয়ে উঠে না ।
যেভাবে গুজব ছড়িয়ে পড়ে আপনার চারপাশে

গুজব যে কত তাড়াতাড়ি ছড়িয়ে পড়ে তা ভাবলে অবাক হয়ে যেতে হয়। কখনও একটা ঘটনা বা দুর্গটনা হয়ত চোখে দেখেছে মাত্র কয়েকজন। কিন্তু দুঘন্টার ভেতরেই সেটা লোকের মুখে মুখে ছড়িয়ে পড়ে সারা শহরে। এর অসাধারণ গতি দেখলে অবাক হতে হয়, বুদ্ধি গুলিয়ে যায়।
কিন্তু সমস্তটা ব্যাপার যদি অঙ্কের সাহায্যে কষো তাহলেই দেখবে আসলে এর ভেতর চমক লাগানো ব্যাপার কিছুই নেই, ব্যাপারটা দিনের আলোর মতোই পরিস্কার হয়ে উঠবে।
নীচের ব্যাপারটা খুঁটিয়ে দেখা যাক।
রাজধানী থেকে একটা আগ্রহজনক খবর নিয়ে এল একজন লোক ৫০,০০০ লোক বাস করে এমন একটি শহরে। যে বাড়িতে উঠল সেখানে তিনজন মাত্র লোককে কথাটা বলল সে। ধর, এতে তার সময় লাগল ১৫ মিনিট।
তাহলে, লোকটি পৌছবার ১৫ মিনিট পরে, ধরা যাক সকাল ৮.১৫-তে, খবরটা জানল মাত্র চারজনঃ সে নিজে আর স্থানীয় তিনজন বাসিন্দা।
এই তিনজনের প্রত্যেকেই অন্য তিনজনকে খবরটা বলতে বেরিয়ে গেল।

যেভাবে গুজব ছড়িয়ে পড়ে আপনার চারপাশে

 

এতে লাগল আরও ১৫ মিনিট। তার মানেই, আধ ঘন্টা বাদে, ৪ + (৩*৩)=১৩ জন লোকের ভেতর সংবাদটা জানাজানি হল।
শেষ যে নয়জন কথাটা জেনেছিল, তারা আবার তিনজন করে বন্ধুবান্ধবকে ঘটনাটা জানাল। সকাল ৮.৪৫ নাগাদ খবরটা জানলঃ ১৩ + (৩*৯)=৪০ জন বাসিন্দা।
গুজবটা যদি এভাবে ছড়াতে থাকে, অর্থাৎ শোনবার ১৫ মিনিটের ভেতর প্রত্যেকেই যদি আরও তিনজনকে খবরটা বরে, তাহলে ফলটা দাঁড়াবে এই রকমঃ
সকাল ৯টায় খবরটা জানবে ৪০+ (৩*২৭)=১২১ জন সকাল ৯.১৫-তে খবরটা জানবে ১২১ + (৩*৮১)=৩৬৪ জন সকাল ৯.৩০-এ খবরটা জানবে ৩৬৪ + (৩*২৪৩)=১০৯৩জন।
তার মানে দাঁড়াচ্ছে দেড় ঘন্টার ভেতর খবরটা জানাজানি হবে প্রায় ১১০০ জনের ভেতর। যে শহর ৫০,০০০ লোকের বাস সে শহরের পক্ষে এটা অবশ্য খুব বেশী বলে মনে হয় না। সত্যি বলতে কি, কেউ কেউ ভাববে যে সমস্ত শহর খবরটা জানতে অনেক সময় লাগবে। খবরটা কত তাড়াতাড়ি ছড়িয়ে পড়বে দেখা যাকঃ
সকাল ৯.৪৫-তে খবরটা জানবে ১০৯৩ + (৩*৭২৯)=৩২৮০ জন সকাল ১০টায় খবরটা জানবে ৩২৮০ + (৩*২১৮৭)=৯৮৪১জন।
তারপরের ১৫ মিনিটেই এটা শহরের অর্ধেকেরও বেশী লোকের কাছে পৌছে যাবেঃ ৯৮৪১ + (৩*৬৫৬১)=২৯,৫২৪জন।
তার মানেই হল সকাল ৮টায় যে খবরটা জানত মাত্র একজন লোক, সকাল ১০.৩০ এর ভেতর সারা শহরের লোক তা জেনে ফেলবে।

দুই
এবার দেখা যাক এটা কি করে হিসেব করা হয়। সমস্ত ব্যাপারটা নীচের এই সংখ্যাগুলির যোগ করায় এসে ঠেকছে।
১ ৩ + (৩*৩) + (৩*৩*৩) + (৩*৩*৩*৩) ইত্যাদি আগে যেভাবে আমরা হিসেব করেছিলাম (১ ২ ৪ ৮ ইত্যাদি) সেরূপ সহজতর পদ্ধতিতেও এটা করা যায় বোধহয়? তা যায়, অবশ্য যে সংখ্যাগুলি বসাচ্ছি তার কতকগুলি বিশেষত্বের দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে;
১=১
৩=১২ ১
৯=(১ ৩) ২ ১
২৭=(১ ৩ ৯) ২ ১
৮১=(১ ৩ ৯ ২৭) ২ ১ ইত্যাদি

তার মানেই হল, প্রতিটি সংখ্যা তার আগের সংখ্যাগুলোর যোগফলের দ্বিগুণের চাইতে ১বেশী।
তাহলে, ১ থেকে যে কোন সংখ্যা পর্যন্ত যোগফল বের করতে হলে শেষের সংখ্যাটার সঙ্গে যোগ করতে হবে সেই সংখ্যার (তা থেকে ১ বিয়োগ দিয়ে নিতে হবে) অর্ধেক।
যেমন ধরা যাক, এই অঙ্কটার যোগফল কত?
১ ৩ ৯ ২৭ ৮১ ২৪৩ ৭২৯
অথবা ৭২৯ ৭২৮-এর অর্ধেক, অর্থাৎ ৭২৯ ৩৬৪=১০৯৩।

তিন
আমাদের গল্পটায় প্রত্যেক বাসিন্দা খবরটা বলছে কেবলমাত্র তিনজনের কাছে। কিন্তু শহরের বাসিন্দারা যদি একটু বেশী কথা বলে, আর খবরটা তিনজনকে না বলে, পাঁচ এমনকি দশজনকে বলে, তাহলে গুজবটা ছড়াবে আরও তাড়াতাড়ি।
পাঁচজন করে বললে ব্যাপারটা দাঁড়াচ্ছেঃ
সকাল ৮টায় ……………… খবরটা জানে ১জন
সকাল ৮.১৫-তে ……………… ১ ৫=৬জন
সকাল ৮.৩০-এ ……………… ৬ (৫*৫)৩১জন
সকাল ৮.৪৫-এ ……………… ৩১ (২৫*৫)=১৫৬জন
সকাল ৯টাতে ……………… ১৫৬ (১২৫*৫)=৭৮১জন
সকাল ৯.১৫-তে……………… ৭৮১ (৬২৫*৫)=৩৯০৬জন
সকাল ৯.৩০-এ ……………… ৩৯০৬ (৩২১৫*৫)=১৯,৫৩১জন

মোদ্দা কথা, ৫০,০০০ বাসিন্দার প্রত্যেকেই সকাল ৯.৪৫-এর আগে খবরটা জেনে ফেলবে।
যদি প্রত্যেক দশজন লোককে খবরটা বলত, তাহলে খবরটা ছড়িয়ে পড়ত আরও তাড়াতাড়ি। এক্ষেত্রে সংখ্যাটা এইভাবে তাড়াতাড়ি বেড়ে যেতঃ

সকাল ৮টায় খবরটা জানত ১জন
সকাল ৮.১৫-তে ……………… ১ ১০= ১১জন
সকাল ৮.৩০-এ ……………… ১১ ১০০= ১১১জন
সকাল ৮.৪৫-এ ……………… ১১১ ১,০০০= ১,১১১জন
সকাল ৯টাতে ……………… ১,১১১ ১০,০০০=১১,১১১জন

এরপরের সংখ্যাটা নিশ্চয়ই হবে ১,১১,১১১। এ থেকেই বোঝা যাচ্ছে সকাল ৯টার কিছু পরেই সারা শহর খবরটা জানা যাবে। এক্ষেত্রে খবরটা সারা শহরে ছড়িয়ে পড়তে এক ঘন্টার কিছু বেশী লাগবে।

 

ঘুরে আসুন এই পেজটিতে

 

 

একটি উত্তর ত্যাগ