ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে প্রথম কাজটি পাবার সূত্র

0
244

প্রায়ই নতুন ফ্রিল্যান্সারদের মাঝে একটা ভুল ধারণা কাজ করে, মনে করেন রিভিউ না থাকলে পাওয়া যায় না অথবা কাজ পেতে অনেক কষ্ট হবে। ধারণাটা আংশিক ঠিক হলেও পুরোপুরি সত্য নয়।
মার্কেটপ্লেসে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপারের দিকে মনযোগ রাখতে হয় (বেশি না) যার কারনে আপনি খুব আয়েশ করে কাজ পেতে পারেন কিংবা উলটপালট হলে আপনার একাউন্ট suspend ও হতে পারে।
Freelance-Stratiges-have-keen-importance-for-the-success-of-freelancers ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে প্রথম কাজটি পাবার সূত্র
তার মধ্যে অন্যতম একটি গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হলো কভার লেটার।
পাশাপাশি গুরুত্তপূর্ণ কাজ পাবার ক্ষেত্রে ৫০% নির্ভর করে আপনি প্রোফাইলটা কিভাবে, কেমন করে সাজিয়েছেন (Including skill tests & portfolio) আর বাকি ৫০% নির্ভর করে কভার লেটার এর উপর।
আর কভার লেটার এবং প্রোফাইল এই দুইটার ভেতর ক্লায়েন্ট প্রথম দেখবে আপনার কভার লেটার। এটা পড়ে ভালো লাগলে সে আপনার প্রোফাইল ভিজিট করবে। তাই বলা যায়, কাজ পাবার জন্য মোটামুটি গোছান একটা প্রোফাইল আর সাথে সেইমাপের একটা কভার লেটারই যথেষ্ট। তবে লেটার এ এমন কিছু থাকতে হবে যেটা হবে সবার থেকে একটু ভিন্ন।
সাধারণত কভার লেটার এ নিজের গুণগান গেয়ে ক্লায়েন্টের মাথা খারাপ করে ফেলেন এমন অনেকেই আছেন, সেটা না করাই ভাল। আপনার কাজ হল, প্রোজেক্টটা ভালভাবে পড়বেন এবং প্রোজেক্ট অনুসারে লেটারটা তৈরি করবেন।
এটাকে কয়েকটি ভাগে ভাগ করে নিলে বুঝতে সুবিধা হবে।
1. প্রথমেই, একটি অভিবাদন (Hello- যা লিঙ্গ নিরপেক্ষ) দিয়ে শুরু করতে পারেন অথবা বলতে পারেন, “Dear Hiring Manager”, বা ক্লায়েন্টের নাম ব্যবহার করতে পারেন যদি নাম জানা থাকে। যেমনঃ “Hi Rafayel”, “Dear John”.
কভার লেটার এর প্রথম বাক্য বা সেন্টেন্স Heavy জোরদার করুন।প্রার্থী দের তালিকা স্ক্যান করবে সে প্রথম বাক্যটা দেখেই। তো এতে আপনার সারাংশ থাকতে হবে। সাধারণত প্রথম ৮ সেকেন্ডেই সে ঠিক করে ফেলে বাকিটা পড়বে না বাদ দিবে।
2. দ্বিতীয়ত ক্লায়েন্ট কি চাচ্ছে সেইটা বুঝার চেষ্টা করুন, তারপর ভেবে দেখুন প্রোজেক্টটা পরে আপনি কি বুঝলেন এবং সিদ্ধান্ত নিন কি করতে হবে বা কাজটি আপনি পারবেন কিনা। নিজের ভাষায় সেটা উপস্থাপন করুন।
2. এরপর আপনি কাজটা কিভাবে সম্পন্ন করবেন সেইটা সংক্ষেপে বর্ণনা করবেন। এরপর এই প্রোজেক্ট সম্পর্কিত আপনার যে পূর্বঅভিজ্ঞতা আছে সেটা উল্লেখ করবেন, পোর্টফোলিও সাইট থাকলে সেটার লিঙ্কও এখানে দিতে পারেন(যদি থাকে)।
3. এরপর কাজটা করতে আপনার কতসময় লাগবে এবং এর জন্য আপনাকে কত পেমেন্ট দিতে হবে সেটা পরিষ্কারভাবে উল্লেখ করবেন।
4. আপনি যে বায়ারের রিপ্লাই এর জন্য অপেক্ষা করছেন সেটা বলবেন।
5. শেষে থ্যাঙ্কস দিয়ে নিজের নাম দিবেন।
ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে প্রথম কাজটি পাবার সূত্রসতর্কবাণীঃ
কভার লেটারে ভুলেও আপনার ইমেইল আইডি, চ্যাট আইডি বা ফোন নম্বর দিবেন না, এটা মার্কেটপ্লেস এর নীতি লঙ্ঘন। যোগাযোগের জন্য যখন ক্লায়েন্ট আপনাকে ইন্টারভিউ এ call/Invite করবে তখনই তথ্য দিতে পারবেন।
একটি কভার লেটার নির্দিষ্ট কাজ এর জন্য একবার ব্যবহার করুন, বারবার একই কভার লেটার ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন। এটাও মার্কেটপ্লেসের নীতি লঙ্ঘন, ধরে নেয়া হবে আপনি স্প্যাম করছেন। আপনি এর জন্য warning পেতে পারেন এবং account suspend ও হতে পারে। প্রতিটি কাজের জন্য কভার লেটার হতে হবে ইউনিক, কাস্টমাইজড।
সবশেষে একটা কথা মনে রাখবেন, কাজ ভিক্ষা চাইবেন না।
মনে রাখবেন, কাজের অভাব নেই। আপনি বাঙ্গালি, পুরো বাংলাদেশের একজন প্রতিনিধি। কাজ দিয়ে প্রমান করেন : “আপনি কে”, এরপর ক্লায়েন্টই আপনাকে খুজে বেড়াবে।
আশা করি লেখাটি সকলের উপকারে আসবে ।
ভাল লাগলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না যেন।

একটি উত্তর ত্যাগ