সম্পূর্ণ বাংলায় ফায়ারফক্স ওএস

0
231

মজিলা ফাউন্ডেশনের তৈরি স্মার্টফোনের অপারেটিং সিস্টেম (ওএস) ফায়ারফক্স ওএস-চালিত স্মার্টফোন এবার ব্যবহার করা যাবে পুরো বাংলায়। শুধু তা-ই নয়, স্মার্টফোনের প্রথম অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে এবারই প্রথম বাংলা কি-বোর্ড থাকছে (বিল্ট-ইন) ফায়ারফক্স ওএস চালিত স্মার্টফোনে। ফায়ারফক্স ওএসে বাংলা ভাষা যুক্ত করার এ কাজটি করেছেন মজিলা বাংলাদেশের সদস্যরা।

ফায়ারফক্স ওএসে প্রথম বাংলা ভাষা যুক্ত করার ব্যাপারে যাঁরা কাজ করেছেন, তাঁদের একজন মজিলা বাংলাদেশের প্রতিনিধি অনিরুদ্ধ অধিকারী। তিনি চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে ফায়ারফক্স ওএস নিয়ে যাঁরা কাজ করেন, তাঁদের কাছে বাংলা ভাষা যুক্ত না থাকার বিষয়টি তুলে ধরেন। পরবর্তীকালে বাংলা যুক্ত হয় ফায়ারফক্স ওএসে।

বাংলা ফন্ট যুক্ত হওয়ার পর ফায়ারফক্স ওএসে বাংলা কি-বোর্ড অভ্র ও প্রভাত যুক্ত হয়েছে। অর্থাৎ চাইলেই ফায়ারফক্স ওএস ১.২ এবং এর পরের সংস্করণ-চালিত স্মার্টফোনে বাংলা পড়া ও ব্যবহার করা যাবে।

বাংলা কি-বোর্ড যুক্ত করার পাশাপাশি পুরো ওএস বাংলা ভাষায় স্থানীয়করণের উদ্যোগ নেওয়া হয়। মজিলা বাংলাদেশের আহ্বানে আট হাজারের বেশি বাক্য মাত্র ১০ দিনেই অনুবাদ করে ফেলেন মজিলা বাংলাদেশের সদস্যরা। এ কাজে যুক্ত ছিলেন জোবায়ের আহমেদ খান, তপু আফরাদ, রাইনসহ অনেকেই। মজিলা বাংলাদেশের কমিউনিটি লিড মাহে আলম খান এ কাজে নেতৃত্ব দেন। তিনি জানান, ‘এ লোকালাইজেশনে যুক্ত হয়েছে সরল অনুবাদ। অর্থাৎ বহুল ব্যবহূত শব্দগুলোর ইংরেজি উচ্চারণ বাংলায় লেখা হয়েছে। এ ছাড়া আশা করছি, বাংলা ফন্টযুক্ত দুটি বাংলা কি-বোর্ড এবং সম্পূর্ণ বাংলায় ইন্টারফেসসহ ফায়ারফক্স ওএস ব্যবহারকারীদের পছন্দ হবে।’

বাংলা ভাষাভাষী বিশেষ করে বাংলাদেশের ব্যবহারকারীদের কথা মাথায় রেখে ফায়ারফক্স ওএসে সম্পূর্ণ বাংলা তৈরি করার কাজে যুক্ত হয়েছিলেন অনিরুদ্ধসহ মজিলা বাংলাদেশের সদস্যরা। কি-বোর্ডটি যুক্ত করার কাজে অভ্রের জাভাস্ক্রিপ্ট লাইব্রেরি থেকে সহায়তা নিয়েছেন অনিরুদ্ধ। জানালেন, ‘এ কাজে অভ্র কি-বোর্ডের মেহেদী হাসান খান, রিফাত নবীসহ অভ্র নিয়ে কাজ করেন এমন অনেকেরই সাহায্য পেয়েছি। এ ছাড়া মজিলার মূল দল কারিগরি দলের অনেকেই সাহায্য করেছেন।’

আপনাদের কাজের একটি ওয়েবসাইট ঠিকানা— সাইটটির লিংক

একটি উত্তর ত্যাগ