কিভাবে আপনার ব্লগের জন্য সুন্দর একটি নাম নির্বাচন করবেন?

6
1962

ব্লগিং বর্তমান ওয়েব দুনিয়ার অত্যন্ত আলোচিত একটি অংশ। আরও একটু বলতে গেলে বর্তমানে ব্লগিং একটি পেশাও। দুনিয়ার অনেক মানুষই অর্থ উপার্জনের জন্যই ব্লগিং করে যাচ্ছেন। কেউবা আবার শখের বশে। সবার উদ্দেশ্য কিন্তু এক নয়। এটি হতেই পারে। আপনি শখের বশে করেন বলে যে, আমিও করব তা কিন্তু নয়। কিন্তু ব্লগিং একটি জায়গায় এসে এই দুইকে একত্রিত করে দেয়। আপনি পরিচিতি পাবেন ইন্টারনেট দুনিয়ায়। আর আপনার ব্লগ যদি একটু উন্নতমানের হয় তাহলেতো কথাই নেই, আপনি হিট। যাই হোক, ব্লগিং দুনিয়াজোড়া খ্যাতিও দেয় আবার প্রয়োজনে অর্থ। যাই হোক, টিউনের মূল কথায় আসি।

কিভাবে আপনার ব্লগের জন্য সুন্দর একটি নাম নির্বাচন করবেন?

মনে করুন, আমি যে কোন উদ্দেশ্য নিয়ে একটি ব্লগ তৈরি করবো। তার জন্য আমাকে অনেক কিছুই চিন্তা করতে হবে। কি নিয়ে আমি ব্লগিং করবো, যা নিয়ে ব্লগিং করবো তাতে ভিজিটর কেমন হতে পারে, মানুষ আমার নির্বাচিত বিষয়ে কতটুকু তথ্য জানতে চায় এবং অন্যান্য এসইও টার্ম। কিন্তু সবার প্রথম এবং অত্যাবশ্যকীয় কাজ হল ব্লগের জন্য সুন্দর ও আদর্শ একটি নাম পছন্দ করা। এই বিষয় নিয়ে অনেকেই হিমিশিম খান। আপাতদৃষ্টিতে নাম পছন্দ করা হয়তো সহজ মনে হতে পারে কিন্তু বাস্তবে তা না। ব্লগের জন্য নাম নির্বাচন করাও কিন্তু একটা আর্ট। কেউ আবার মনে মনে বইলেন না, আইছে, ব্লগের নাম শিখাইতে। কিন্তু শিখানো না, আমি শুধু একটু সচেতন করছি। একটি সুন্দর ব্লগের নাম কিন্তু অনেক কিছুই করতে পারে। আসুন একটু দেখি, কিভাবে আমরা ব্লগের জন্য সুন্দর ও আদর্শ নাম নির্বাচন করতে পারি।

যদি আপনি ৩টি বিষয়ের প্রতি একটু লক্ষ্য করেন তবে বুঝতে পারবেন আপনার ব্লগের নাম কতটুকু সুন্দর ও আদর্শ হচ্ছে। দেরী না করে চলুন দেখি কি আছে এতে।

)          এটি আপনার ব্লগের বর্ণনা প্রদান করবেঃ এটা কিন্তু সত্য যে, মানুষ সার্চ ইঞ্জিনের মাধ্যমে হোক বা আকস্মিকভাবেই হোক আপনার সাইট ভিজিট করার পূর্বে আপনার সাইটের নাম জানতে চাইবে। ধরুন, আপনাকে আমি বললাম আমার ব্লগ এইটা। আপনি কিভাবে বুঝবেন আমার ব্লগ কোন্‌টা। নামটা বলতে হবে তো। কিন্তু নামটা এমন হতে হবে যেই নাম দিয়ে আমার ব্লগের আলোচ্য বিষয়বস্তু সম্পর্কে আপনি প্রাথমিক একটি ধারণা পেয়ে যান। আর আপনি যদি একবার জানতে পারেন আমার ব্লগ কিসের উপর ভিত্তি করে তৈরি তবে আপনিও ভিজিট করতে আগ্রহী হবেন। অন্যথায় নয়। তাই এমন নাম নির্বাচন করুন যা ভিজিটরকে আপনার সাইটের ছোট্ট বর্ণনা প্রদান করে।

)          এটি যেন মনে রাখতে সুবিধা হয়ঃ মনে করুন, আপনার ব্লগ হচ্ছে সাইক্লিং, ফিটনেস এবং সাধারণ স্বাস্থ্য পরামর্শ বিষয়ক। এখন যদি আমি ব্লগের নাম দেই “সাইক্লিং, ফিটনেস এবং সাধারণ স্বাস্থ্য পরামর্শ বিষয়ক ব্লগ”। আপনি আজকে আমার ব্লগ দেখলেন। কিন্তু আমি নিশ্চিত আগামীকাল আপনি আমার ব্লগের নাম ভুলে যাবেন। মনে মনে বলবেন, কি যেন ছিল ব্লগের নামটা??? ইত্যাদি ইত্যাদি। কিন্তু আমি যদি নামটা এমন দেই “স্বাস্থ্য পরামর্শ” তাহলে আপনি খুব ভালোভাবেই মনে রাখতে পারবেন। তাই নাম বড় করলেই চলবে না, লক্ষ্য রাখতে হবে ভিজিটর যেন সহজেই আপনার ব্লগের নাম মনে রাখতে পারে। কি? তাই নয় কি।

)          ডোমেইন নামের সাথে সাদৃশ্যতাঃ এই নিয়মটাই আমরা প্রায় সময় এড়িয়ে চলি। এর কারণ একটাই, হয়তো যেই নামটি আমরা খুঁজছি সেটি পূর্বেই রেজিষ্ট্রার হয়ে গেছে। রেজিষ্ট্রার হয়নি এমন ডোমেইন খুঁজে পাওয়াও কিন্তু একটি কঠিন কাজ। কিন্তু ডোমেইন নাম এবং ব্লগের নামের মধ্যে যদি একটুও সাদৃশ্যতা না থাকে তাহলে নিশ্চিত আপনি ভিজিটর হারাবেন। আপনার ব্লগের নাম “স্বাস্থ্য পরামর্শ” আর ডোমেইন নাম “সাইক্লিং.কম” তাহলে কি হবে? না, হবে না। মানুষ যখন কোন লিঙ্ক বা সার্চিং এর মাধ্যমে আপনার সাইটে আসবে তখন সে আপনার ব্লগ নামের পাশাপাশি ডোমেইন নাম ও দেখবে। আর এসব বিষয় দেখেই সে সিদ্ধান্ত নিবে, যে সে কি আবার কিছুদিন পর আপনার সাইটে আসবে নাকি না। আর যদি আসেই, সে শুধু ইউআরএল এ গিয়ে আপনার ব্লগের নাম ও সাথে ডট কম লিখে তবেই সাইটে আসবে। তার জন্য সার্চও করবে না বা অন্য কোন লিঙ্কও খুঁজবে না। আর তারা যদি এভাবে আপনার ব্লগ না খুঁজে পায় তবে আপনি ভিজিটর হারাবেন।

কি? এবার মনে হচ্ছে তো ব্লগের আদর্শ নাম প্রদান করাটাও একটি গুরুত্বপূর্ণ কাজ। এই নিয়মগুলো মেনে ব্লগের নাম পছন্দ করুন। সব দিক থেকেই লাভবান হবেন। আশা করছি বুঝতে কারো কোন সমস্যা হয়নি। আর সমস্যা হলে কমেন্ট বক্সতো আছেই, তাই না। সকলকে সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

আপনারা আমার ব্লগে আসুন, ঘুরে দেখুন। ভালো লাগলে ওখানেও কিছু পোষ্ট শেয়ার করবেন।

6 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ