ফটোশপের ফাটাফাটি কিছু টিপস + বোনাস ফটোশপ টিউটোরিয়াল

2
658

সালাম সবাইকে আসা করি ভালো আছেন। আজকে ফটোশপ এর চমৎকার কিছু টিপস শেয়ার করব আপনাদের সাথে আসা করি ভালো লাগবে আপনাদের। ফটোশপের উপর এলোমেলোভাবে প্রয়োজনীয় কিছু টিপস নিয়েই আজকের লেখা।

১. ফটোশপে পেন টুল দিয়ে কোনো পাথ তৈরি করার পর আমরা সেটাকে সিলেকশনে রূপান্তরিত করার জন্য সাধারনত পেন টুল সিলেক্টেড থাকা অবস্থায় রাইট ক্লিক করে Make Selection এ ক্লিক করি। কিন্তু না, এখন আপনাদেরকে অত কষ্ট করতে দিচ্ছি নে। পাথ তৈরি করার পর কিবোর্ড থেকে Ctrl+Enter চাপুন। তাহলেই দেখবেন আপনার পাথটি সিলেকশনে পরিনত হয়েছে।

tips01 ফটোশপের ফাটাফাটি কিছু টিপস + বোনাস ফটোশপ টিউটোরিয়াল

২. নিচের ছবিটি দেখুন। প্রথমে লেয়ার প্যানেল দেখা যাচ্ছে। লেয়ার প্যানেলে অনেকগুলো লেয়ার দেখা যাচ্ছে। লেয়ারগুলোকে মার্জ করে একটি লেয়ারে পরিনত করার জন্য মেনু থেকে Layer>Flatten Image এ গেলেই হবে। কিন্তু অনেক সময় লেয়ারগুলোর একটা মার্জড কপি আলাদা ভাবে প্রয়োজন হয়। মানে লেয়ারগুলো একত্রে মার্জ হয়ে আলাদা আরেকটা লেয়ারে বসবে। ব্যাপারটা হয়তো ঠিক সেভাবে বুঝাতে পারছি না। তাহলে প্রথম ছবিটি দেখুন। লেয়ার প্যানেলে যা যা দেখা যাচ্ছে তার সমষ্টিগত রূপ হল দ্বিতীয় ছবিটি। এখন আমরা যদি বিশেষ কোনো সুবিধার জন্য লেয়ার প্যানেলটা কে তৃতীয় ছবিটির মত করতে চাই তাহলে আমাদের কে যা করতে হবেঃ
ফটোশপের ফাটাফাটি কিছু টিপস + বোনাস ফটোশপ টিউটোরিয়াল
প্রথম ছবিটিতে যেমন সবার উপরের লেয়ার সিলেক্ট করা আছে তেমনিভাবে আপনি আপনার ডকুমেন্ট এর লেয়ার সমূহের মধ্যে সবচেয়ে উপরের লেয়ার সিলেক্ট করুন। তারপর কিবোর্ড থেকে Ctrl+Shift+Alt+E চাপুন। তাহলেই দেখবেন আপনি তৃতীয় ছবির মত লেয়ার সমূহ একত্রে আলাদা একটি লেয়ারে পেয়ে গেছেন।

৩. নিচের ছবির মত টেক্সচার আপনি খুব সহজে এবং দ্রুত বানাতে পারবেন ফটোশপ দিয়ে।
ফটোশপের ফাটাফাটি কিছু টিপস + বোনাস ফটোশপ টিউটোরিয়াল
যা যা করতে হবে তা হলঃ
প্রথমে মেনু থেকে Filter>Render>Clouds এ ক্লিক করুন।
ফটোশপের ফাটাফাটি কিছু টিপস + বোনাস ফটোশপ টিউটোরিয়াল
তারপর Filter>Render>Lighting Effects ক্লিক করুন।
এবার নিচের ছবির মত সেটিংস নির্ধারন করুন। আশা করি আপনি উল্লেখিত টেক্সচারটি পেয়ে গেছেন।
ফটোশপের ফাটাফাটি কিছু টিপস + বোনাস ফটোশপ টিউটোরিয়াল

৪. ছবিটি দেখুন।
ফটোশপের ফাটাফাটি কিছু টিপস + বোনাস ফটোশপ টিউটোরিয়াল
কোনটা ফোরগ্রাউন্ড কালার আর কোনটা ব্যাকগ্রাউন্ড কালার সেটা দেখানো আছে। আপনার ফোরগ্রাউন্ড কালার যাই থাকুক না কেন (কালো, নীল, সবুজ), কোনো লেয়ার কিংবা সিলেকশনকে ফোরগ্রাউন্ড কালারে সবচেয়ে সহজে ফিল করার জন্য কিবোর্ড থেকে Alt+Backspace অথবা Alt+Del চাপুন।
ঠিক একই ভাবে ব্যাকগ্রাউন্ড কালার কোনো লেয়ারে কিংবা সিলেকশনে ফিল (Feel নয়, Fill) করার জন্য কিবোর্ড থেকে Ctrl+Backspace অথবা Ctrl+Del চাপুন।

৫. নিচের ছবিতে আমার নামটি (SHEMUL) দেখুন।
ফটোশপের ফাটাফাটি কিছু টিপস + বোনাস ফটোশপ টিউটোরিয়াল
এটি কিন্তু একেবারে মাঝখানে বসেনি। আমরা চাচ্ছি এটিকে মাঝখানে বসাতে। এখন আমরা হয়তো অনুমানের ভিত্তিতে এটিকে মাঝখানে বসাতে পারি। কিন্তু তা কি একদম বরাবর মাঝখানে বসবে? না, একটু এদিক সেদিক হবেই। তবে আমরা যদি এটিকে মাঝখানে বসাতে চাই তাহলে রুলার অ্যাকটিভ করে গাইড টেনে অনেক ঝামেলা করে মাঝখানে বসাতে হবে। কি দরকার এত কষ্ট করার। আমি আছি না? খাইছে ফটোশপের ফাটাফাটি কিছু টিপস + বোনাস ফটোশপ টিউটোরিয়াল
মুভ টুল সিলেক্ট করুন। উপরের ছবিতে দেখানো আছে। কিবোর্ড থেকে V চাপলেও পারেন। বাধা দিবে না কেউ। তারপর যে টেক্সট/শেপ কে মাঝখানে বসাতে চান সেই লেয়ারটি সিলেক্ট করুন। আমি এখানে SHEMUL নামক লেয়ারটি সিলেক্ট করেছি যেহেতু আমি আমার নামটিকেই মাঝখানে বসাতে চাই।
হ্যা, এরপর কিবোর্ড থেকে Ctrl+A চাপুন। এরপর অপশন বারে আপনাকে দুটি বাটনে ক্লিক করতে হবে। কোন দু’টি বাটনে ক্লিক করবেন? নিচের ছবিটি দেখুন।
ফটোশপের ফাটাফাটি কিছু টিপস + বোনাস ফটোশপ টিউটোরিয়াল
এবার নিচে দেখুন আমার নামটি ঠিক ঠিক মাঝখানে বসেছে।
ফটোশপের ফাটাফাটি কিছু টিপস + বোনাস ফটোশপ টিউটোরিয়াল
আপনাদের জন্য টিউটোরিয়াল বানাইতে গিয়া নিজের নামের ডেস্কটপ ওয়ালপেপার বানাইয়া ফেলছি… এইটার ফাইনাল ভার্সন দেখবার লাইগা এখানে গুতা দেন

৬. অনেক সময় আমরা একাধিক ছবি একসাথে স্ক্যান করি। স্ক্যান করার পর ছবিগুলোকে আবার ক্রপ করে সোজা করতে হয়। ছবি যত বেশি হয় ব্যাপারটা ততই ঝামেলার। তো এ ঝামেলা থেকে মুক্তির জন্য শিমুল ভাই আপনাদের সেবায় হাজির। নাহ, শিমুল ভাই কিছুই করবে না। যা করার আপনাদেরই করতে হবে। File মেনু থেকে Automate>Crop and Straighten Photos এ ক্লিক করুন। ফটোশপই যা করার করবে। আপনি চুপচাপ বসে বসে মজা নেন। আর হ্যা, না বুঝলে নিচের ছবি দেখুন।
ফটোশপের ফাটাফাটি কিছু টিপস + বোনাস ফটোশপ টিউটোরিয়াল

৭. কোনো লেয়ারের অপাসিটি কমানোর জন্য মুভ টুল সিলেক্ট থাকা অবস্থায় নিউমেরিক কিবোর্ড থেকে 5 চাপলে অপাসিটি 50 এ নেমে যাবে। 3 চাপলে 30 হবে। এভাবে 9 চাপলে 90 হবে ইত্যাদি ইত্যাদি এবং 0 চাপলে 100 হবে। আপনি যদি খুব দ্রুত 53 প্রেস করেন তাহলে অপাসিটি 53% হবে।

৮. রঙিন ছবি থেকে সবচেয়ে কম সময়ে মানসম্পন্ন সাদাকালো ইমেজ যদি তৈরি করতে চান তাহলে Image>Adjustments>Channel Mixer ক্লিক করুন। এরপর Monochrome এ টিক চিহ্ন দিন। যদি আপনার তাড়াহুড়া না থাকে তাহলে Image>Adjustments>Black & White এ ক্লিক করুন। এরপর আপনার প্রয়োজনমত সেটিংস গুলো নাড়াচাড়া করুন।

আর হ্যা, কোনো প্রকার ভুল হয়ে থাকলে আমি দুঃখিত। নিজ গুনে সবাই ক্ষমা করে দিবেন এই কামনায়… সবাই ভালো থাকুন।

2 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ