ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেস সাইটে কতগুলো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়

0
257

ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেস সাইটে কতগুলো গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আছে যা ভালভাবে না জানার কারনে অনেকে সফলভাবে ফ্রিল্যান্সিং শুরু করতে পারেন না।তাই নিচে কিছু আলোকপাত করা হল:

রেটিং(Rating): একটি কাজ সম্পন্ন হবার পর ক্লায়েন্ট কাজের ফলাফলের উপর ভিত্তি করে প্রোভাইডারকে ১ থেকে ১০ এর মধ্যে রেটিং দেয়। এখানে সর্বোত্তকৃষ্ট রের্টিং হচ্ছে ১০ এবং সর্বনিম্ন রেটিং হচ্ছে ১ এবং নতুন কাজ পাবার ক্ষেত্রে এই রেটিং খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে । তাই সবসময় ১০ রেটিং পাওয়ার জন্যে প্রজেক্টের রিকোয়ারমেন্ট পরিপূর্ণ ভাবে এবং দক্ষতার সাথে সম্পন্ন করা উচিত।

রেংকিং(Ranking): একটি ফ্রিল্যান্সিং সাইটে রেজি: কৃত সকল প্রোভাইডারের মধ্যে একজন নির্দিষ্ট প্রোভাইডারের অবস্থান কত জানা যায় রেংকিং এর মাধ্যমে। সাধারণত একজন প্রোভাইডারের গড় রেটিং এবং সে কত বেশি ডলারের কাজ করেছে তার উপর ভিত্তি করে রেংকিং নির্ধারণ করা হয়। রেটিং এর মত রেংকিংও নতুন কাজ পাবার ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।যার রেংকিং যত সামনের দিকে তার কাজ পাবার সম্ভাবনা অন্যদের চাইতে বেশি।

ডেডলাইন(Deadline): প্রত্যেক পজেক্ট শেষ করার একটি নির্দিষ্ট সময়সীমা বা ডেডলাইন সময় থাকে। এই সময়ের পূর্বে অবশ্যই কাজ শেষ করতে হবে।কোন প্রোভাইডার যদি ডেডলাইনের পূর্বে কাজ শেষ না করতে পারে তাহলে বায়ার ইচ্ছে করলে তাকে কোন মূল্য পরিশোধ না করে সম্পন্ন কাজটি নিয়ে যেতে পারে।উপরক্ত ক্লায়েন্ট সেই   প্রোভাইডারকে  একটি নিম্নমানের রেটিং দিয়ে দিতে পারে। তাই কোন প্রজেক্টের  ডেডলাইন সময় প্রয়োজনের তুলানায় কম হবে কাজ শুরু করার র্পূবেই বায়ারকে অনুরোধ করে বাড়িয়ে নেয়া উচিত।

মেডিএশন(Mediation): একটি প্রজেক্ট চলাকালীন সময় বায়ার এবং প্রোভাইডারের মধ্যে কোন সমস্যা হলে তা সমাধানের জন্য মেডিএশন এর ব্যবস্থা রয়েছে।এই পদ্ধতিতে সাইটের যথাযথ কতৃপক্ষ উভয় পক্ষের সাথে আলোচনা করে এবং সমাধানের কার্যকরী পদক্ষেপ নেয়।

আজকের বিষয়:

Elance হল অন্যতম বৃহত্তর অনলাইন ফ্রিল্যান্স মার্কেটপ্লেস।বর্তমানে এখানে সবচেয়ে ভালো কাজ পাওয়া যায় এবং এখানে কাজের টাকার পরিমানটাও অনেক বেশি। এখানেও চুক্তি ভিত্তিক অথবা ঘণ্টা প্রতি কাজ পাওয়া যায়। বাংলাদেশের কম সংখ্যক লোকই elance এ কাজ করে থাকে। কারন এখানে বেশি সংখ্যক কাজের জন্য অ্যাপ্লাই করতে সাবস্ক্রিপশন ফি দিতে হয়। কিন্তু এবং দুনিয়াজুড়ে নামকরা সকল ফ্রিল্যান্সিং কোম্পানি elance এ কাজ করেন ।
এক্ষেত্রে কিন্তু আমাদের বাংলাদেশিরাও পিছিয়ে নেই । elance এ বাংলাদেশীদের অবস্থান মোটামুটি ৪ নাম্বারে (ইন্ডিয়া, উক্রেইন, পাকিস্তান, বাংলাদেশ)। elance এ সব চেয়ে বড় যে সুবিধা আছে সেটা হল ‘ESCROW System’ . এটি এমন একটা ব্যবস্থা , যেখানে ক্লায়েন্ট ও প্রোভাইডার , দুই পক্ষেরই একটা নিরাপদ পেমেন্ট ব্যবস্থা থাকে। এই সিস্টেম এ টাকা প্রথমে এখানে জমা হয় , এবং কাজ শেষে ক্লায়েন্ট টাকা ছাড় করে দেন। কিন্তু কোন কারনে কোনো পক্ষ যদি সমস্যা সৃষ্টি করে তাহলে elance এ আপিল করা যায় , তখন elance সকল মেসেজ পরীক্ষা-নিরিক্ষা করে জয়ী পক্ষকে টাকা দিয়ে দেয়।
http://www.Elance.com

সবার আগে প্রকাশ এখানে এবং সবসময় ….. এবং কিভাবে এ্যাকাউন্ট করবেন ও কিভাবে কাজ পাবেন তা জানতে এই ব্লগে ভিজিট করুন

একটি উত্তর ত্যাগ