ফ্রীল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস ‘ফ্রীল্যান্সার’ টিউটোরিয়ালঃ দ্বিতীয় পর্ব (প্রতি রবিবার) Freelancer.com এ বিড করবেন যেভাবে ।

2
321
ফ্রীল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস ‘ফ্রীল্যান্সার’ টিউটোরিয়ালঃ দ্বিতীয় পর্ব (প্রতি রবিবার) Freelancer.com এ বিড করবেন যেভাবে ।

মুত্তাকিন অভি™

আমি Arts নিয়ে পড়েছি কিন্তু সায়েন্স নিয়ে ব্যাপক / সিরাম কিউরিসিটি আছে । তাই বিজ্ঞান অনেক ভালবাসি । পোস্টে কোন সমস্যা বা অভিমত জানাতে ভুলবেন না । আর টিপির সঙ্গেই থাকুন ভালো ভালো পোস্ট উপভোগ করুন । ধন্যবাদ ।
ফ্রীল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস ‘ফ্রীল্যান্সার’ টিউটোরিয়ালঃ দ্বিতীয় পর্ব (প্রতি রবিবার) Freelancer.com এ বিড করবেন যেভাবে ।

সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়ে শুরু করছি রবিবার স্পেসিয়াল ফ্রীলান্সার টিউটোরিয়াল দ্বিতীয় পর্ব ।

আমি ক্রিয়েটিভ আই টিএর পক্ষ হতে আমাদের তরুণ সমাজকে ফ্রীলান্স বিষয়ে ভুল ধারনা থেকে বেরিয়ে আসার পথ দেখাতে চাই ।

ফ্রীল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস ‘ফ্রীল্যান্সার’ টিউটোরিয়ালঃ দ্বিতীয় পর্ব (প্রতি রবিবার) Freelancer.com এ বিড করবেন যেভাবে ।


তো চলুন ফ্রীলান্সার নিয়ে দ্বিতীয় পর্ব শুরু করা যাক…

১. প্রথমেই আপনার Freelancer.com একাউন্টে লগইন করুন। তারপর Browse project এ ক্লিক করুন। এখানে আপনি দেখতে পাবেন অসংখ প্রোজেক্ট শ্রেনীবিন্যাস আকারে আছে। আর সব শেষ ফিচার প্রোজেক্ট। যে কোন প্রোজেক্ট এ ক্লিক করুন। কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে প্রোজেক্ট পেজ চলে আসবে আপনার সামনে। এখানে আপনি দেখতে পারবেন যে, কোন বায়ার প্রোজেক্টটি তৈরী করেছেন তার নাম, প্রোজেক্টের বিবরন এবং নিচের দিকে দেখতে পারবেন বিডারদেরকে(প্রোভাইডার)। আপনি যে প্রোজেক্টটি করতে পারবেন বলে মনে করেন (এটি অবশ্যই আপনার কাজ করার যোগ্যতা দ্বারা নির্দিষ্ঠ করে রাখতে হবে, যখন আপনি Freelancer.com এর একাউন্ট সাইনআপ করবেন, এ বিষযে বিস্তারিত জানতে আমার আগের পোষ্টটি লক্ষ করুন এখানে) সেটিতে ক্লিক করুন। তবে একটি বিষয় অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে যে, আপনি যে প্রোজেক্টটি বিড করবেন সেটি সম্পন্ন করার জন্য আনুসাঙ্গিক যা যা দরকার সেগুলো আপনার আছে কিনা। তা নাহলে আপনি প্রোজেক্টটি লাভ করার পর বিভ্রান্তিতে পরবেন ১০০%। বায়ারের প্রোজেক্ট এর বর্ননা ভাল করে পড়ে নিন। কোথাও না বুঝলে PMB (Private Message Board) এর মাধ্যমে রায়ারকে জিজ্ঞাসা করতে পারেন। এখন সব কিছু ঠিক ঠাক থাকলে BID ON THIS PROJECTবাটনে ক্লিক করুন।

 

২. Bid placing window আসবে, এটা হল আপনার প্রোজেক্ট বিডের মূল অংশ। এখানে আপনাকে যা যা করতে –

ক. The project title: প্রোজেক্টর নাম, এখানে আপনার কিছু করার নেই।

খ. Your bid for the total project: এখানে নির্ধারন করতে হবে কত ডলার বিনিময়ে প্রোজেক্টটি সম্পন্ন করতে ইচ্ছুক আপনি।

গ. In how many days can you deliver a complicated project: এই অংশে নির্ধারন করতে হবে কত দিনের মধ্যে প্রোজেক্টটি সম্পন্ন করতে পারবেন।

ঘ. Initial milestone percentage required (0-100%): এটি গুরুপ্তপূর্ণ অংশ। যদি আপনি মনে করেন যে, প্রোজেক্টটি শুরু করার পূর্বে আপনি বায়ার থেকে অগ্রিম অর্থ পেতে চান তা এখানে নির্দিষ্ট করতে হবে। তবে এটি কিন্তু বায়ার সরাসরি আপনাকে আপনার একাউন্ট এ জমা করায় দিবে না। বায়ার শুধুমাত্র আপনার একাউন্টে ডলার ঝুলায় দিবে কারন এটি কাজের এবং বায়ারকে প্রোভাইডারের কাছে বিশ্বাসভাজন হতে সাহায্য করে। আপনি বায়ারের কাজ শেষ করবেন তারপর মাইলস্টোন বিলিজ এর রিকোয়েস্ট দিবেন এবং বায়ার আপনার বিকোয়েস্ট অনুযায়ী মাইলস্টোন রিলিজ করে দিবে। মাইলস্টোন হিসাবে আপনি কত ডলারে বিড করছেন তার ২৫% অথবা ৫০% চাইতে পারেন।

ঙ. Make your bid highlighted (Cost: $1): এই অপশনটি নির্বাচন করে রাখলে আপনার একাউন্ট থেকে 1$ কেটে নিবে ফ্রীলান্সার। কারন হল এটি দ্বারা আপনার বিডটিকে বায়ারের প্রোজেক্ট-এ হাইলাইট দেখাবে। এবং বায়ারের কাছে আপনার প্রোজেক্ট প্রাপ্তির আশংক বাড়রে। নিজের অভিজ্ঞতা থেকে বলছি শতকরা ৯৫% প্রোভাইডার যারা এই অপশনটি ব্যবহার করে তারা প্রোজেক্ট জয় লাভ করে।

চ. Now the Bidding message section: Text here will be shown as title on Project এখানে আপনি যা লিখবেন তা সরাসরি প্রোজেক্ট উইন্ডোতে প্রদর্শন করবে। সুতরাং এখানে বেশি কিছু না লিখাই ভাল। বিস্তারিত যা লিখার তা PMB (Private Message Board) তে লিখবেন। এত করে আপনার আর বায়ারের সাথে গোপনীয়তা রক্ষা পাবে। শুধুমাত্র এই লিখাগুলো লিখতে পারেন:  Check PM or PMB, Ready to start etc.

ছ. Also send a private message to the project seller এই অপশনটি চেক মার্ক করুন. এবার নিচে Private Message Box (PMB) প্রদর্শন করবে। প্রোজেক্ট এর সাথে সামজস্যপূর্ন কথা এখানে লিখবেন। এখানে আপনি আপনার পূর্বের অভিজ্ঞতা, কাজ করার ধরন সবকিছুই উল্লেখ করবেন।

জ. সবকিছু একবার করে দেখে নিন ঠিক আছে কিনা। সর্বশেষে Place Bid বাটনে ক্লিক করুন।

 

৩. প্রোজেক্টটি সফলভাবে পোস্ট হলে নিচের মত বার্তা প্রদর্শন করবে। তারপর প্রোজেক্টটি দেখতে VEIW PROJECT বাটনে ক্লিক করুন।

 

৪. প্রোজেক্ট ভিউ পেজ এ সব বিডারদের সকর তথ্য প্রদর্শন করবে। সেই সময় আমার রিভিউ ছিল মাত্র ১ 

 

৫. এবার ফ্রীলান্সারে আপনার এক্সটারনাল প্রোফাইল এ গিয়ে দেখে নিন সর্বশেষ কোন প্রোজেক্ট এ আপনি বিড করেছেন।

 

৬. এখানেই আপনার প্রোজেক্ট বিড এর প্রক্রিয়া শেষ। এবার অপেক্ষা করুন বায়ারের প্রতি উত্তরের। উল্লেথ্য: আমি প্রোজেক্টটি বিড করার ২ ঘন্টার মধ্যেই জয় লাভ করি 

 

কিছু কথা :

১. প্রোজেক্ট বিড করার পূর্বে সবসময় মনে রাখবেন, আপনার যদি কথা দ্বারা বায়ারকে বুঝানোর ক্ষমতা থাকে তবে প্রোজেক্টটির বিডিং সময় শেষ হবার পূর্বেই তা জয়লাভ করতে পারবেন। যেমনটি আমি লাভ করেছিলাম। 
২. ফ্রীলান্সারে আপনার অবস্থানকে মজবুত করার জন্য পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারেন। বর্তমান সময়ে ফ্রীলান্সারে (এইটটিএমএল, পিএইচপি এবং আরো অনেক) বিভিন্ন বিভাগে অনেকগুলো পরীক্ষার বব্যস্থা রয়েছে। যদিও Employer Orientation, Freelancer Orientation, Practice Exam ছাড়া বাকী সবগুলো 5$ এর বিনিময়ে কিনতে হবে। তারপরেও 5$ মূখ্য নয়, আপনি পরীক্ষাগুলো দিলে আপনার দক্ষতা বাড়বে এবং বায়ার আপনার প্রোফাইল দেখে আপনাকে মার্কিং করতেও ইচ্ছুক হবে। পরীক্ষাগুলো এখানে থেকে দেখে নিতে পারেন।
৩. আপনার প্রোফাইলকে সবসময় পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন, এবং সঠিক তথ্য সমৃদ্ধ রাখুন। কারন, আপনি কখনোই বুঝবেন না যে, এতা বিশাল প্লাটফর্মে আপনাকে হয়তো কেউ হায়ার করতে পারে আপনার তথ্য দেখে।
৪. আপনার জন্য যতটুকু দরকার বা যতটুকু না হলেই নয় তার চেয়ে বেশি রেটে কখনই বিড করবেন না। কারন, বায়ার অবশ্যই চাইবে যে তার প্রোভাইডার কম মূল্যে তার কাজটি করে দিবে। তবে হ্যা এতটাই কম দিবেন না যেটা আপনার রেটিং কে নিম্নগামী করে। আরেকটা বেপার, প্রোজেক্টটা যত কম সময়ে শেষ করতে পারবেন তত ভাল আপনার জন্য্ এত বায়ার আপনার প্রতি আস্খা পাবে। এবং পরবর্তীতে তার থেকে আরো কাজ পেতে সহায়তা করবে।
৫. এবার আসি মূল্য নিধারন এর ব্যাপারে, মাঝে মাঝে আমাকে অনেকেই জিজ্ঞাসা করেন যে, প্রোজেক্ট এর রেট যদি 30$-250$ এর মধ্যে হয় তবে তারা কত রেটে প্রোজেক্টটি বিড করবে। ব্যপারটি অত্যান্ত গুরুপ্তপূর্ণ। আপনাকে নিজেকেই বুঝতে হবে এটি, আপনি যে প্রোজেক্টটি বিড করছেন সেটি সম্পন্ন করতে আপনাকে কি কি করতে হবে। সবদিক বিচার বিবেচনা করে তারপর প্রোজেক্টটে মূল্য বসাবেন।
৬. কাজটির প্রতি কনফিডেন্ট না হলে ভুলেও মাইলস্টোন(অগ্রিম) পেমেন্ট চাইবেন না। নিজের অভিজ্ঞতা থেকে বলছি। আর কনফিডেন্ট হবার পরেও যদি কোন কারনে সময়মত কাজ দিবে ব্যর্থ হন তবে বায়রের সাথে যোগাযোগ করুন। কারন, আপনার সামান্য ভুল বা খামখেয়ালি আপনার ফ্রীলান্সার ক্যারিয়ারকে বিনষ্ট করার জন্য যথেষ্ঠ। 
৭. সর্বশেষে আপনি আপনার নিয়মানুবর্তীতার উপরে চিন্তা করুন। যদি আপনি মনে করেন যে, আপনি পারবেন তবে আপনাকে ফ্রীলান্স বিশ্ব-তে  স্বাগতম। অন্যথায়, অপেক্ষা করুন আর নিজেকে আউটসোর্সিং এর জন্য প্রস্তুত করুন।

 

ফ্রীলান্স অথবা SEO আপনার যেকোন প্রশ্ন থাকলে আমাদের ফেসবুক অফিসিয়াল গ্রুপে তা করতে পারেন

অধিকতর জানার জন্য সরাসরি যোগাযোগ করুন

Orchid Plaza, House # 2 (5th & 6th Floor)
Road # New-15/Old-28, Dhanmondi, Dhaka
Hotline: 02 8152402, 01714134424, 01193094545
E-mail: info@creativeit-ltd.com
Web: www.creativeit-inst.com

আমার ফেসবুক

আমাকে ফলো করুন

Google +

2 মন্তব্য

  1. প্রিয় মোত্তাকিন ভাই, খুব সুন্দর পোষ্ট হয়েছে। আশা করি এভাবে নুতন ফ্রিল্যান্সারদের অনুপ্রেরণা যোগাবেন। আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। ভালো থাকুন।

একটি উত্তর ত্যাগ