গুগল এডসেন্স হতে পারে ব্লগ থেকে আয়ের অনন্য উপায়-

2
440

গুগল এডসেন্স হতে পারে ব্লগ থেকে আয়ের অনন্য উপায়-

আপনারা হয়তো অনেকেই ভাবতেছেন যে, কেন আপনি গুগোল এডসেন্স করবেন বা কেন আপনি গুগোল এডসেন্স নিয়ে কাজ করবেন? একটু সময় ব্যায় করে জেনে নিন গুগোল এডসেন্স করার কারণ গুলো।

গুগোল এডসেন্সে একাউন্ট খোলা যায়:

 

গুগল এডসেন্স account পাওয়া একটু কষ্ট্যসাধ্য কিন্তু নিয়ম অনুযায়ী আবেদন করলে গুগল এডসেন্স খুব সহজেই পাওয়া যায় ,পুনরায় বলি

অবশ্যয় মনে রাখতে হবে যে, নিয়ম মেনে আবেদন করলেই গুগল এডসেন্সের একাউন্ট পাওয়া যায়।

ব্লগের লেখার বিষয়ের উপর বিজ্ঞাপন দেখায়:
আপনার ব্লগটি যেই বিষয়েরই হোক না কেন গুগল ঠিক সেই বিষয়েরই বিজ্ঞাপন দেখাবে। আপনার ব্লগের গুগল এডসেন্সের বিজ্ঞাপনে ক্লিক পেতে এই বিষয়টি খুবই জরুরী। আপনার ওজন কমানোর ব্লগে যদি বিজ্ঞাপনদাতা খেলার বিজ্ঞাপন দেখায় তাহলে কি পাঠকেরা আপনার ব্লগের বিজ্ঞাপনে ক্লিক করবে? না করবে না। এ বিষয়ে গুগল এডসেন্স সবার সেরা।

খুব সহজে পছন্দমতো বিজ্ঞাপন বসানো যায়:

আপনার সাইটের ডিজাইন যেমনই হোক না কেন, নানা রকম সাইজের টেক্সট, ইমেজ কিংবা ভিডিও বিজ্ঞাপন ব্যবহার করে আপনি রং, ফন্ট পরিবতন করে গুগল এডসেন্সের বিজ্ঞাপন ঠিকই সাইটের সাথে মানিয়ে নিতে পারবেন।

প্রতি ক্লিকেই টাকা পাওয়া যায়:
অনেক বিজ্ঞাপনদাতা আছে যারা বিজ্ঞাপন দেবার আগে বলে দিবে যে নিদির্ষ্ট কিছু দেশ কিংবা এলাকা থেকে ক্লিক পড়লেই কেবল ক্লিক প্রতি টাকা দেয়া হবে। কিন্তু গুগল এডসেন্সের বেলায় এমনটি কখনো ঘটে না। পাঠক যেকোনো দেশ, যেকোনো অঞ্চল থেকেই হোক না কেন, সঠিকভাবে ক্লিক পড়লেই আপনি ইনকাম পাবেন।ভুলেও আপনি আপনার নিজে বিজ্ঞাপনে ক্লিক করবেন না কিংবা কাউকে ক্লিক করতে উৎসাহিত করবেন না। তাহলে গুগল আপনার একাউন্ট বন্ধ করে দিবে।

প্রতি ক্লিকে ভালো আয়ের হার পাওয়া যায়:
গুগল এডসেন্সের প্রতি ক্লিকে আয়ের হার অন্য যেকোন বিজ্ঞাপনদাতার আয়ের হারের চেয়ে বেশি হয়ে থাকে। বিষয়ের উপর নির্ভর করে ক্লিকে আয়ের হারও উঠা নামা করে। কিণ্ডু ব্লগিংয়েই তুলনামূলকভাবে আয় বেশি করা যায়।

যেকোনো বিষয়েরই উপর বিজ্ঞাপন দেখানো সম্ভব:
খেলাধূলা হোক আর চায়ের ব্লগ হোক, গুগল যেন যেকোনো বিষয়েই বিজ্ঞাপন দেখাতে পারে। তাই এডসেন্স ব্যবহারের সময় এই বিষয়ে কোনো চিন্তা করতে হয় না, কোড বসালেই গুগল বিষয় ভিত্তিক বিজ্ঞাপন দেখায়।

সঠিক সময়ে টাকা পাওয়া যায়:
অনেক বিজ্ঞাপনদাতা আছে যারা প্রতি ৪৫ দিন কিংবা ৬০ দিনে পেমেন্ট করে। কিন্তু প্রতিমাসে ১০০ ডলার / ৬০ পাউন্ড হলেই ৩০ দিন পর গুগল চেক ইস্যু করে। কোনো ধরনের তালবাহানা কিংবা দেরি হয় না।

গুগলের সাথে প্রতারণা না করে নিয়ম মেনে কাজ করলে গুগল এডসেন্স হতে পারে ব্লগ থেকে আয়ের অনন্য উপায়।

আমার ব্লগ দেখতে পারেন

 

2 মন্তব্য

  1. গুগোল এডসেন্সে একাউন্ট খোলা যায়:
    গুগল এডসেন্স account পাওয়া একটু কষ্ট্যসাধ্য কিন্তু নিয়ম অনুযায়ী আবেদন করলে গুগল এডসেন্স খুব সহজেই পাওয়া যায় ,পুনরায় বলি
    অবশ্যয় মনে রাখতে হবে যে, নিয়ম মেনে আবেদন করলেই গুগল এডসেন্সের একাউন্ট পাওয়া যায়।

    সুদু একাউন্ট khular joneo bistarito post dan vi photo shoho
    গুগল এডসেন্স হতে earn kora jai sobai bolea kintu kau
    niom ta ki account korar kau bolea na
    অবশ্যয় মনে রাখতে হবে যে, নিয়ম মেনে আবেদন করলেই গুগল এডসেন্সের একাউন্ট পাওয়া যায়।

একটি উত্তর ত্যাগ