চকলেট খেলে নাকি নোবেল পাওয়া যায়,বিশ্বাস না হলে দেখতে পারেন!!!

0
213
চকলেট খেলে নাকি নোবেল পাওয়া যায়,বিশ্বাস না হলে দেখতে পারেন!!!

মুত্তাকিন অভি™

আমি Arts নিয়ে পড়েছি কিন্তু সায়েন্স নিয়ে ব্যাপক / সিরাম কিউরিসিটি আছে । তাই বিজ্ঞান অনেক ভালবাসি । পোস্টে কোন সমস্যা বা অভিমত জানাতে ভুলবেন না । আর টিপির সঙ্গেই থাকুন ভালো ভালো পোস্ট উপভোগ করুন । ধন্যবাদ ।
চকলেট খেলে নাকি নোবেল পাওয়া যায়,বিশ্বাস না হলে দেখতে পারেন!!!

চকলেট খেলে নাকি নোবেল পাওয়া যায়,বিশ্বাস না হলে দেখতে পারেন!!! 

যে দেশের মানুষ যত বেশি চকলেট খায় সে দেশ মাথাপিছু তত বেশি নোবেল পায় বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। ‘নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অব মেডিসিন’ নামক সাময়িকীতে গবেষণা প্রতিবেদনটি প্রকাশিত হয়েছে।

কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ফ্রাঞ্জ মেসারলি বলেছেন, কোকো বীজ, সবুজ চা, লাল চা ও কিছু ফল-মূলে ফ্লেভোনয়েডস ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ব্যক্তির অবধারণগত দক্ষতা যাতে কমে না যায় সেজন্য এ উপাদানগুলো সহায়তা করে। 

আর চকলেট তৈরি হয় কোকো বীজ থেকে। ফলে চকলেট খেলে মানুষের অবধারণগত দক্ষতা বৃদ্ধি পায়। আর এ ইতিবাচক ফল শুধু ব্যক্তি নয়, পুরো দেশের মানুষের ওপরই পরে বলে জানিয়েছেন গবেষকরা। 

তারা ২৩ টি দেশের ওপর গবেষণা পরিচালনা করে গবেষকরা এ তথ্য দিয়েছেন বলে জানিয়েছে ভারতীয় বার্তা সংস্থা পিটিআই। 

মেক্সিকোর অ্যাজটেকস ও মায়া সভ্যতার মানুষেরা কোকো বীজ থেকে তৈরি পানীয় পান করত। এরপর স্প্যাশিন যোদ্ধারা (কনকুইসটাডোরস) ১৬শ’ শতকে কোকো বীজকে ইউরোপে পরিচিত করে তোলে। পরবর্তীতে ১৯ শতকে সুইজারল্যান্ড এ বীজ থেকে চকোলেট বার তৈরি করে। 

মেসারলি বলেছেন, স্বভাবতই সুইজারল্যান্ড চকলেট ভোক্তা ও নোবেল পাওয়া দেশ এই দুটি ক্ষেত্রেই সবচেয়ে বেশি এগিয়ে রয়েছে। উৎপাদনের ভিত্তিতে চকলেট খাওয়ার মাত্রা নিরূপণ করেছেন তিনি। 

চকলেট খাওয়া ও নোবলে পাওয়ার মাত্রায় মাঝামাঝি অবস্থানে আছে যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স ও জার্মানি। আর তালিকার শেষের দিকে আছে চীন, জাপান ও ব্রাজিল। 

তবে মেসারলি বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে বলেছেন, গবেষণার এ ফল প্রকল্প-পরীক্ষণের মাধ্যমে পাওয়া গেছে। এ নিয়ে আরো গবেষণার প্রয়োজন আছে।

 

Outsourcing Summit 2012

পূর্বে প্রকাশিত  আমার ব্লগে ঘুরে আসতে পারেন  আরও অনেক কিছু

My Facebook

My Twitter

একটি উত্তর ত্যাগ