ইন্টারনেটে আয় করতে চান ?কিছু ভুল ধারনা সম্পর্কে জানি.

0
753

ইন্টারনেটে আয় করতে চান ?

তাহলে দেখে নিন কিছু কমন ভুল যেগুলো সাধারনত আমি,আপনি অনেকেই করছি ।

  • ইনভেষ্ট করে আয় করা

হ্যা, ইনভেষ্ট করে আয় করা যায় ! আবার সর্বশান্তও হওয়া যায় । পিটিসিতে,হাইপে ইনভেষ্ট করে অনেকেই ধরা খেয়েছে ।ইদানিং ফরেক্স ক্রেজ শুরু হয়েছে । ফরেক্সে যেমন প্রচুর আয় করার লোভনীয় হাতছানি আছে আবার না বুঝে করলে ব্যাপক লসেরও সম্ভাবনা আছে ।

  • রেফারেলের মাধ্যমে আয় করা

আমাদের অনেকেরই একটা বদঅভ্যাস আছে সেটা হলো- যাচাই বাছাই করার দরকার নেই, আমি শুনেছি আমার এক বন্ধুর মামার চাচার এক দুঃসম্পের্কের এক ফুফাতো ভাইয়ের ছোটভাই একটা সাইট থেকে ১ ডলার ইনকাম করেছে আগামী মাসের ৩০ তারিখে সে পেআউট করবে আ্যালার্টপেতে । কোনভাবে তার কাছথেকে সাইটের আ্যাড্রস নিয়ে সাইনআপ করি এবং বড় বড় কমিউনিটি সাইটগুলোতে রেফারেল লিংকসহ পোষ্ট দেই, স্প্যাম কমেন্ট দেই । নিজে তো ধরা খাচ্ছিই, অন্যরা যাতে ধরা খায় তার জন্য আন্তরিকভাবে সকল ব্যাবস্হা গ্রহন করছি ! ভাবখানা  এমন “আসুন সকলে মিলিয়া সকলের জীবন অতিষ্ঠ করিয়া তুলি ।”

  • খুব সহজে, বিনা পরিশ্রমে ইন্টারনেটে আয় করা যায়

এটা সবচেয়ে বড় ভুল ধারনা। আপনি আশা করছেন একজন চাকুরীজীবী কিংবা ব্যবসায়ীর থেকে বেশি আয় করবেন অথচ পরিশ্রম করবেন না এটা বাস্তবসম্মত হতে পারে না। ইন্টারনেটে যে পদ্ধতিতেই আয় করুন না কেন, আপনাকে যথেস্ট সময় এবং মেধা ব্যয় করতে হবে।

  •  ইন্টারনেটে আয় করা সকলের পক্ষে সম্ভব না

এটা আরেকটা বড় ভুল ধারনা। ইন্টারনেটে কাজ বলতে যেমন দক্ষ প্রোগ্রামিং বুঝায় তেমনি তুলনামুলক সহজ গ্রাফিক ডিজাইন বুঝায়, কিংবা আরো সহজ ডাটা এন্ট্রি বুঝায়। যে কোন শিক্ষিত মানুষের পক্ষে মানানসই কাজ খুজে নেয়া সম্ভব। তবে একথা অবশ্যই ঠিক, দক্ষতা যত বেশি আয়ের সুযোগ তত বেশি। দক্ষতা যেহেতু বাড়ানো যায় সেহেতু সুযোগও বাড়ানো যায়।

  • পেইড-টু-ক্লি (PTC) সহজে আয়ের কার্যকর পদ্ধতি

পিটিসি হচ্ছে কোন ওয়েবসাইটে গিয়ে নির্দিষ্ট লিংকে ক্লিক করবেন আর আপনার নামে টাকা জমা হবে। বিষয়টি সত্যি। তবে যতটা প্রচার করা হয় ততটা না। আপনি কতগুলি ক্লিক করার সুযোগ পাবেন সেটা নির্দিষ্ট করে দেয়া হয়। কাজ করে টাকা না পাওয়ার অভিযোগও রয়েছে।

  • ইন্টারনেটে আয় করতে নিজের খরচে ওয়েবসাইট তৈরী করতে হয়

একেবারে বিনামুল্যে ওয়েবসাইট তৈরী করা যায়। কাজেই ওয়েবসাইট তৈরী, ডোমেন কিংবা হোষ্টিং এর খরচ ছাড়াই সব কাজ করা সম্ভব। তবে নিজস্ব ডোমেন-হোষ্টিং সবসময়ই ভাল।

  • ক্রেডিট কার্ড বা পে-পল একাউন্ট নেই, ফলে একাজ সম্ভব না

কিছুটা সত্যি। ক্রেডিট কার্ড থাকলে কাজের সুবিধে হয়, পে-পল একাউন্ট থাকলেও সুবিধে হয়। তারপরও মানুষ কাজ করছে এগুলি ছাড়াই। অন্য যে পদ্ধতিগুলি রয়েছে সেগুলি ব্যবহার করে কাজ করা সম্ভব।

  •  অনেকগুলি সাইটে অনেকগুলি এডসেন্স ব্যবহার করলে আয় বেশি

এডসেন্সে লাভ দেখে অনেকেই একাধিক এডসেন্স একাউন্ট ব্যবহারে আগ্রহি হন। এটা ভুল পথ। গুগল কোনএকসময় সেটা ধরে ফেলবে এবং সবগুলি একাউন্ট বন্ধ করে দেবে।

  • সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (SEO) সফটঅয়্যার ব্যবহার করলে দ্রুত আয় বাড়ে

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশনের জন্য সফটঅয়্যার ব্যবহার করলে অবশ্যই সাইটের পরিচিতি বাড়ে কিন্তু এডসেন্সকে টার্গেট করে যদি সেটা করেন তাহলে গুগল সেটা পছন্দ করে না। গুগল এমন সাইটে লাভজনক এডসেন্স বিজ্ঞাপন দেয় সেখানে ভিজিটর নিজে আগ্রহি হয়ে যায়। ফলে কোন সাইটে প্রতি ক্লিকে পাওয়া যায় কয়েক সেন্ট, কোন সাইটে কয়েক ডলার।

  • ইন্টারনেটে আয়ের জন্য কোন খরচ নেই

বিনামুল্যের সবসময়ই কিছু খারাপ দিক থাকে। ভাল হোষ্টিং, প্রয়োজনীয় সফটঅয়্যার, প্রচারের জন্য এডওয়ার্ডস বিজ্ঞাপন সবকিছুই ভাল আয়ের সহায়ক।

  • ইন্টারনেটে আয়ের ক্ষেত্রে ভৌগলিক সীমারেখা নেই

অনেক সেবার ক্ষেত্রেই অনেক দেশে সীমাবদ্ধতা রয়েছে। বাংলাদেশে যেমন পে-পল ব্যবহার করা যায় না, ক্লিক ব্যাংকে একাউন্ট খোলা যায় না, কোন কোন সাইটে ঢোকা যায় না ইত্যাদি। কোন সেবা কোনদেশে প্রযোজ্য আগে জেনে নেয়াই ভাল।

  • ইন্টারনেটে কিভাবে কাজ করতে হয় শেখার জন্য কোর্স করা প্রয়োজন

আপনি যখন আয় করতে চান ইন্টারনেট ব্যবহার করে, তখন শেখার জন্যও ইন্টারনেট সবচেয়ে গুরুত্বপুর্ন জায়গা। যে বিষয়ই জানতে চান না কেন, ইন্টারনেট সার্চ করলে তথ্য পাওয়া যাবে। বিভিন্ন ওয়েবসাইটের সদস্য হোন, ফোরামে যোগ দিন, সেখানকার বক্তব্যগুলি বোঝার চেষ্টা করুন। প্রয়োজনে সেখানে সমস্যার কথা জানান। কেউ না কেউ উত্তর দেবেন।

পো্ষ্টটি আপনার কিঞ্চিত উপকারে আসলে  আমার ব্লগ প্রবেশ করিয়েন.

 

একটি উত্তর ত্যাগ