পেনড্রাইভ দিয়ে পিসি বুট করবেন? তাহলে আর দেরী না করে এখনি দেখে নিন কিভাবে বুট মেনু চেঞ্জ করে নিবেন

3
1037

বিসমিল্লাহহির রাহমানির রাহিম

পেনড্রাইভ দিয়ে পিসি বুট করবেন? তাহলে আর দেরী না করে এখনি দেখে নিন কিভাবে বুট মেনু চেঞ্জ করে নিবেন

আসসালামু আলাইকুম

আশাকরি সবাই ভালই আছেন। আজ আপনাদের সামনে দারুন একটি পোস্ট নিয়ে হাজির হলাম। আশাকরি সবাই উপক্রিত হবেন।

অনেকেই আছে BIOS শুনলেই ভয় পায়। ভাবে যে BIOS এর সেটিংস চেঞ্জ করতে গিয়ে উল্টা পাল্টা কি করে বসব তার ঠিক নেই। ভয়ের কিছু নেই, আপনাদের ভয় দূর করার জন্য আমি তো আছিই। কাল আপনাদের বলেছিলাম কিভাবে বুটেবল পেনড্রাইভ তৈরী করতে হয়। পোস্টটি দেখতে

এখানে

যান।

পেনড্রাইভ দিয়ে পিসি বুট করার জন্য আপনাকে পেনড্রাইভ এর বুট Priority বাড়িয়ে দিতে হবে অর্থাৎ BIOS এর Boot Menu সেটিংস চেঞ্জ করতে হবে। তবে চলুন ছবি সহ সম্পূর্ণ টিউটোরিয়াল শুরু করা যাক, দেখি আপনার ভয় কাটাতে পারি কিনা !!

প্রথমে আপনার USB পোর্ট এ পেনড্রাইভ লাগান। তারপর পিসি স্টার্ট করুন। প্রথমে এমন একটি স্ক্রীন আসবে। এখন কীবোর্ড থেকে F2 চাপুন।

পেনড্রাইভ দিয়ে পিসি বুট করবেন? তাহলে আর দেরী না করে এখনি দেখে নিন কিভাবে বুট মেনু চেঞ্জ করে নিবেন

তারপর এখান থেকে কীবোর্ড এর রাইট Arrow কি ব্যবহার করে Boot এ যান। (ছবি বড় করে দেখতে ছবির উপর ক্লিক করুন)

পেনড্রাইভ দিয়ে পিসি বুট করবেন? তাহলে আর দেরী না করে এখনি দেখে নিন কিভাবে বুট মেনু চেঞ্জ করে নিবেন

এরকম স্ক্রীন আসবে। এরপর ডাউন Arrow কি ব্যবহার করে Boot Device Priority তে গিয়ে Enter চাপুন।

পেনড্রাইভ দিয়ে পিসি বুট করবেন? তাহলে আর দেরী না করে এখনি দেখে নিন কিভাবে বুট মেনু চেঞ্জ করে নিবেন

এরকম স্ক্রীন আসবে। তারপর ডাউন Arrow কি ব্যবহার করে Hard Disk Drive সিলেক্ট করুন এবং কীবোর্ড থেকে প্লাস সাইনে ‘+‘ চাপ দিয়ে Hard Disk Drive কে প্রথমে দিয়ে দিন। এখন Enter চাপুন।

পেনড্রাইভ দিয়ে পিসি বুট করবেন? তাহলে আর দেরী না করে এখনি দেখে নিন কিভাবে বুট মেনু চেঞ্জ করে নিবেন

একই ভাবে ডাউন Arrow কি ব্যবহার করে Hard Drive Order এ গিয়ে আপনার পেনড্রাইভকে প্রথমে দিয়ে দিন।

 

 

এরকম স্ক্রীন আসবে। এখান থেকে F10 চেপে তারপর Enter চাপুন ব্যাস কাজ শেষ।

পেনড্রাইভ দিয়ে পিসি বুট করবেন? তাহলে আর দেরী না করে এখনি দেখে নিন কিভাবে বুট মেনু চেঞ্জ করে নিবেন

এরপর আরামে আপনার পিসি বুট করুন ডিভিডি এর চেয়ে কম সময়ে।

কি এবার আপনার ভয় কমাতে পারলাম তো? একবার ট্রাই করেই দেখুন না কত সোজা। পেনড্রাইভ থাকতে শুধু শুধু টাকা নষ্ট করবেন কেন বলেন। প্রযুক্তি যখন আপনার খরচ বাঁচানোর উপায় বের করেই দিয়েছে তখন তা গ্রহন করবেন না কেন!!

অবশ্য এই সিস্টেম যাদের ডিভিডি ড্রাইভ নষ্ট তাদের জন্য আশীর্বাদ। আমার মনে হয় পোস্ট টি ভাল করে পরলে আপনার কোনো সমস্যা হবার কথা না। তারপরেও সমস্যা হোক আর নাই হোক কেমন লাগলো জানাতে ভুলবেন না।

(বিঃদ্রঃ আমি আমার পিসি তে কাজ করেছি, আপনার পিসির BIOS এর ভার্সন আলাদা হতে পারে সেক্ষেত্রে Option গুলো কিছুটা আলাদা হতে পারে তবে সিস্টেম একই। আমি অন্য পিসি তেও কাজ করেছি কোনো সমস্যা হয়নি, মূল ব্যাপারটা বুঝতে পারলে আপনারও কোনো সমস্যা হবে না)

আজ এ পর্যন্তই। সবাই ভাল থাকবেন। ধন্যবাদ পোস্টটি কষ্ট করে পড়ার জন্য।।

আল্লাহ্‌ হাফেজ

 

3 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ