গেমস জোন: Red Faction: Armageddon (2011)

1
389
এটি 283 পর্বের গেমস জোন সিরিজ টিউনের 63 তম পর্ব
গেমস জোন: Red Faction: Armageddon (2011)

গেমওয়ালা

হ্যালো! আমি ফাহাদ! গেমওয়ালা হয়ে টিউনারপেজে রয়েছি অনেকদিন ধরেই। আমি একজন পুরোনো টিউনার এই টিউনারপেজের। গেমস নিয়ে রয়েছি আমি তোমাদেরই সাথে। আশা করি আরো বেশ কিছুদিন থাকতে পারবো।
গেমস জোন: Red Faction: Armageddon (2011)

হাই কেমন আছেন? নিয়ে এলাম গেমস জোনের নতুন পর্ব। আজকের জোনে থাকছে একটি থার্ড পারসন শুটিং গেমস।

আজকের গেমস রেড ফিকশন: আর্মাগেডন

গেমস জোন: Red Faction: Armageddon (2011)

রেড ফিকশন: আর্মাগেডন একটি থার্ড পারসন শুটিং ভিডিও গেমস যেটি ভলিশন ইন্ডাস্ট্রিজ দ্বারা ডেভেলপ করা হয়েছে এবং পাবলিশ করেছে টিএইচকিউ। গেমসটি রেড ফিকশন গেমস সিরিজের ৪র্থ গেমস। গেমসটি মাইক্রোসফট উইন্ডোজ, প্লে-স্টেশন ৩ এবং এক্স.বক্স ৩৬০ গেমস কনসোল এর জন্য গত বছর (২০১১) জুনে রিলিজ পায়।

 

Red Faction: Armageddon

গেমস জোন: Red Faction: Armageddon (2011)

Developer:

Volition Inc.

 

Publisher:

THQ,

Syfy Games

 

Distributor:

Valve Corporation

 

Series:

Red Faction

 

Engine:

Geo-Mod 2.5

 

Platform:

Microsoft Windows,

PlayStation 3,

Xbox 360

 

Release Date:

June 7 – 10, 2011

 

Genre:

Third-person Shooter

 

Mode:

Single & Multiplayer

 

Raitings:

BBFC: 15

ESRM: M

PEGI: 18

 

Trailer Videos:

www.youtube.com/watch?v=XjxMuMOH08s

 

 

www.youtube.com/watch?v=Of4rAZlIL2I

 

 

www.youtube.com/watch?v=NO_HG5drmoY

গেমস জোন: Red Faction: Armageddon (2011)

 

System Requirements:

Mode

Processor

OS

RAM

V-RAM

HDD

Minimum Core 2 Duo 2.93GHz WinXP 2GB 512MB 10GB
Recommended Quad Core 2.4GHz Win7 2GB 1GB
Maximum Core i3 2.8GHz Win7 4GB 2GB

 

আর্মাগেডন গেমসটির পটভূমি অনেকটা ডেস্ট্রাকটিভ। প্লেয়ারকে অবশ্যই কালটিস্ট সংগ্রহ করতে হবে সপূর্ণ পৃথিবী হতে এবং পৃথিবীকে বাঁচাতে হবে হোস্টাইল মার্টিন ক্রিয়েচার হতে। গেমটিতে আপনাকে ডেইরিয়স মেইসন চরিত্রে খেলতে হবে। ম্যাগনেট অস্ত্র ব্যবহার করে ডেইরিয়স দুটি শস্ত্রুর মাঝে সংঘর্ষ লাগাতে পারে। যা দারুণ মজার। এছাড়াও গেমটিসে ন্যানো-ফ্রোগ ফিচার আবারো এসেছে। মেইসন ফ্যামিলি ন্যানো-ফ্রোগ টিতে ৬ যুগ ধরে আগলে রেখেছে। ডেইরিয়স এর বাবা ন্যানো-ফ্রোগ অস্ত্রটিকে বানিয়েছেন। এর সাহায্যে বড় বড় বিল্ডিং এক ফায়ারে উড়িয়ে দিয়ে যাবে। আর শত্রু??? হা হা হা!!

গেমসটি কো-অপারেটিভ মোডে সব্বোর্চ ৪ জন প্লেয়ার সাপোর্ট করে।

 

গেমসটির পটভূমি প্ল্যানেট মার’স এ। ২১৭০ সালে। যা সিরিজের আগের গেমস হতে ৫০ বছর পরে। মার’স স্বাধীণ হবার পর গেমসটির কী এ্যানটাজনিস্ট এডাম হেইল ম্যাসিভ ট্যারাফরমার পৃথিবী থেকে মারস এ আনেন। এতে প্ল্যানেট জুড়ে বিশাল এবং ভয়ংকর ঝড় এর সৃষ্টি হয়। যা কারণে এডাম বাধ্য হয়ে মারস এর আন্ডারগ্রাউন্ড মাইন গুলো খুলে দিতে হয়। আন্ডারগ্রাউন্ড মাইনগুলো বহু বছর আছে এ্যানচেষ্টটর রা বানিয়েছিলেন। যার কারণ এখনো রহস্যময়।

গেমসটি শুরু হয় মাইনগুলো খুলে দেবার ৫ বছর পর। প্লেয়ার চরিত্রে পাচ্ছেন ডেইরিয়স মেইসন কে। যে মারস এ ভালোই ব্যবসা করছে। ব্যবসা টা অস্ত্রের। তো একদিন অস্ত্রের ডিল করতে ডেইরিয়স একটি পুরোনো মন্দির এ যায়। মন্দির এর ভিতর গিয়ে ধাঁধাময় রহ্যসের জালে সে হাজার বছর ধরে ঘুমিয়ে থাকা মাটির্য়েন ক্রিয়েচার দৈত্য গুলোকে জাগিয়ে তুলে। এর ফলে প্ল্যানেট মারস এর আর্মাগেডন এর সৃষ্টি হয়। মারস এর সামরিক বাহিনীতে ডেইসন যোগ দিয়ে দৈত্যগুলোকে ধামাতে যায় মারস ধ্বংস থেকে বাঁচাতে। গেমস শুরু এখানেই . . . . . . ।

গেমস জোন: Red Faction: Armageddon (2011)

গেমস জোন: Red Faction: Armageddon (2011)

গেমস জোন: Red Faction: Armageddon (2011)

গেমস জোন: Red Faction: Armageddon (2011)

গেমস জোন: Red Faction: Armageddon (2011)

গেমস জোন: Red Faction: Armageddon (2011)

গেমস জোন: Red Faction: Armageddon (2011)

গেমস জোন: Red Faction: Armageddon (2011)

গেমস জোন: Red Faction: Armageddon (2011)

 

 

ডাউনলোড করুন (.৫০জিবি):

DOWNLOAD HERE

 

গেমসটি খেললাম। ভালই লাগলো। বিশেষ করে ফিমেইল ক্যারেক্টারগুলো! হা হা হা। :roll:

গেমস জোন: Red Faction: Armageddon (2011)

আশা করি আজকের গেমস জোন আপনাদের ভাল লেগেছে। সামনের পর্বে আরো মজার মজার গেমস নিয়ে আমি গেমওয়ালা আবারো হাজির হবো। তবে একটা কথা, পরিমাণ করে গেমস খেলবেন, অতিরিক্ত গেমস চোখ, ব্রেইন এবং শরীলের জন্য ক্ষতিকর।

 

ধন্যবাদ।

 

Series Navigation << গেমস জোন (রিভিউ) : HALO : Combat Evolved Anniversary (2011)গেমস জোন: Dishonored (2012) >>

1 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ