E-commerce website তৈরি করার ৫টি প্ল্যাটফর্ম

0
453

E-commerce website তৈরি করার ৫টি প্ল্যাটফর্মসালাম সবাইকে। আমরা সবাই জানি বর্তমান অনলাইন যুগের অন্যতম একটি চাহিদা রয়েছে ই কমার্স ওয়েবসাইটের। কেননা এখনো এই প্ল্যাটফর্মে অনেকেই আগ্রহ বোধ করছেন না ইহার ডেভলোপার হবার। তবে এখন সমস্ত জায়গায় রয়েছে এর চাহিদা। সেই সাথে বাংলাদেশেও এখন রয়েছে এর প্রচুর চাহিদা। So, if you become a ecommerce web developer you will get huge works to do. Also if you learn ecommerce site development you can start your own business via commercial site. আজ আপনাদের সাথে ই-কমার্সিয়াল সাইট তৈরীর কয়েকটা পদ্ধতি আমি বলব। ই-কমার্স সাইট তৈরীর সবচেয়ে দ্রুত এবং সহজ উপায় হচ্ছে বিভিন্ন ধরনের সি.এম.এস ব্যবহার করা। সি.এম.এসগুলোর থীম এবং প্লাগইনগুলো যেকোন সাইটকেই খুব সহজে ই-কমার্সিয়াল সাইটে পরিণত করতে পারে। আসুন দেখে নেয়া যাক পদ্ধতিগুলো।

১। ওয়ার্ডপ্রেস:

আমার কাছে সি.এম.এস গুলোর মধ্যে ওয়ার্ডপ্রেসই সবচেয়ে ভাল লাগে। ওয়ার্ডপ্রেসের মাধ্যমে আপনি ই-কমার্সসহ যেকোন ধরনের সাইট তৈরী করতে পাড়েন। ওয়ার্ডপ্রেসের রয়েছে হাজার হাজার ফ্রি থীম ও প্লাগইন।

২। জুমলা:

জুমলাও কিন্তু কোন অংশে কম নয়। জুমলার মাধ্যমে খুবই সহজে ই-কমার্স সাইট তৈরী করা সম্ভব। জুমলার যেসব ফিচার রয়েছে সেগুলো ই-কমার্স সাইট তৈরীর জন্য খুব বেশী ফ্রেন্ডলী।

৩। ম্যাজেন্টো:

বর্তমানে যেসব সি.এম.এস বেশী ব্যবহার হয়ে আসছে তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ম্যাজেন্টো। ২০০৮ এর দিকে এই ফ্রি সি.এম.এস টির যাত্রা শুরু হয়। ম্যাজেন্টোর মার্কেটপ্লেসে অনেক ফ্রি এবং প্রিমিয়াম থীম ও প্লাগইন পাওয়া যায়, যার মাধ্যমে ই-কমার্স সাইট তৈরী করা খুব সহজ।

৪। জেন-কার্ট:

ওপেন সোর্স সি.এম.এস যারা ব্যবহার করেন তাদের অনেকেই জেন-কার্ট খুব পছন্দ করেন। জেন-কার্ট কনটেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের সকল সুবিধাই বিনামূল্যে পাওয়া যায়।

৫। ওএসকমার্স:

এখন যেসব ষ্টোর ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার রয়েছে সেগুলোর মধ্যে ওপেন সোর্স কমার্স বা ওএসকমার্স অন্যতম। ওএসকমার্সসের মার্কেটপ্লেসে রয়েছে হাজার হাজার ফ্রি প্লাগইন যা আপনার সাইটের সৌন্দর্য্  বৃদ্ধিতে অনেক সহায়তা করতে পারে।

একটি উত্তর ত্যাগ