নিজেই তৈরি করুন ভার্চুয়াল কম্পিউটার! সহজেই।

14
2101
নিজেই তৈরি করুন ভার্চুয়াল কম্পিউটার! সহজেই।

গেমওয়ালা

হ্যালো! আমি ফাহাদ! গেমওয়ালা হয়ে টিউনারপেজে রয়েছি অনেকদিন ধরেই। আমি একজন পুরোনো টিউনার এই টিউনারপেজের। গেমস নিয়ে রয়েছি আমি তোমাদেরই সাথে। আশা করি আরো বেশ কিছুদিন থাকতে পারবো।
নিজেই তৈরি করুন ভার্চুয়াল কম্পিউটার! সহজেই।

সালাম সবাইকে আসা করি সবাই ভাল আছেন। আজকে চমৎকার একটি ট্রিকস শেয়ার করছি সবার সাথে। এই টিউনটিকে টিপস বলবো, নাকি সফটওয়্যার রিভিউ বলবো নাকি ফালতু পোষ্ট বলবো খুঁজে পাচ্ছি না। যাই হোক সফটওয়্যারটি আমার ভালো লেগেছে তাই টিউন করতে বসলাম। :p বাজারে গেমস এর ডিভিডি চেক করছিলাম। তো একটি ডিভিডি পেলাম “দরকারী সব গেমিং টুলস” শিরোনামে। কিনালাম। সেখানে আজকের সফটওয়্যারটা পেলাম।

 

সফটওয়্যারটির নাম ভার্চুয়াল বক্স

নিজেই তৈরি করুন ভার্চুয়াল কম্পিউটার! সহজেই।

প্রথমে আমি ভেবেছিলাম এটি কি হবে। হতে পারে এটি পিএস৩ এ্যমুলেটর এর মতই কোনো কিছু হবে। তবে ইনস্টল করার পর আসল মজা পেলাম। এই সফটওয়্যারটির দ্বারা আপনি ভার্চুয়াল পিসি তৈরি করতে পারবেন।

ভার্চুয়াল বক্স / ভার্চুয়াল পিসি কি?


উত্তরঃ

ভার্চুয়াল বক্স একটি ক্রস-প্লাটফর্ম ভার্চুলাইজেশন এ্যাপ্লিকেশন। এটার মানে কি??? মানে হল, এটি আপনার ইন্টেল / এএমডি বেইসড পিসিতে একই সময়ে মাল্টিপল অপারেটিং সিস্টেম এর সুবিধা দেয়। উদাহরণ স্বরুপ: আপনি উইন্ডোজ ব্যবহার করেন, এখন এই সফটওয়্যারটির সাহায্যে একই সাথে আপনি লিনাক্স, ম্যাক, উইন্ডোজ সার্ভার ২০০৮, উবুন্টু ইত্যাদি যাবতীয় অপারেটিং সিস্টেম ইচ্ছেমত ইন্সটল করে একই সাথে ব্যবহার করতে পারেন। আপনি চাইলে যত খুশি ভার্চুয়ার মেশিন বানাতে পারেন। তবে এটির লিমিট হল আপনার পিসির ডিক্স স্পেস এবং আপনার পিসির মেমোরি।

 

এখানে লিনাক্স মেশিন এ ভার্চুয়াল বক্সে উইন্ডোজ ৭ চালানো হচ্ছে:

নিজেই তৈরি করুন ভার্চুয়াল কম্পিউটার! সহজেই।

 

সার্পোট:

১)      সর্বোচ্চ ৩২টি ভিন্ন ভিন্ন সিপিইউ চালাতে পারবেন ভার্চূয়াল বক্সে। (আপনার পিসির গতির উপর ভিত্তি করে)

২)      ইউ.এস.বি ২.০/৩.০/৪.০

৩)     পোর্টেবল হার্ডডিস্ক

৪)      ফুল এসিপিআই

৫)      মাল্টিক্রিণ রেজুলেশন

৬)     বিল্ট-ইন আইএসসিএসআই

৭)     পিএক্সই নেটওর্য়াক বুট

 

যা যা লাগবে:

১)      ভার্চুয়াল বক্স সফটওয়্যার (পোষ্টের শেষে ডাউনলোড লিংক দেওয়া আছে)

২)      কমপক্ষে ডুয়াল কোর গতির পিসি। (এর নিচে কেউ ট্রাই করবেন না)

৩)     অপারেটিং সিস্টেম: উইন্ডোজ এক্স.পি(সকল সার্ভিস প্যাক -৩২বিট), উইন্ডোজ সার্ভার ২০০৩ এবং ২০০৮ (৩২বিট), উইন্ডোজ ভিসতা (৩২ / ৬৪ বিট), উইন্ডোজ ৭ (৩২ / ৬৪ বিট), ম্যাক ওএস এক্স ১০.৫ (লিওপার্ড, ৩২বিট) এবং ১০.৬ (ৱো লিওপার্ড, ৩২/৬৪ বিট), লিনাক্স : উবুন্টু ৬.০৬ থেকে ১০.০৪।, ডেবিয়ান জিএনইউ/ লিনাক্স ৩.১/৪.০/৫.০, ওরাক্যাল এন্টারপ্রাইজ লিনাক্স ৪ / ৫, রেডহ্যাট এন্টারপ্রাইজ লিনাক্স ৪ / ৫, ফিডোরা কোর ৪ থেকে ১২, জেন্টো লিনাক্স, এসইউএসই লিনাক্স ৯ এবং ১০, ওপেন এসইউএসই ১০.৩ / ১১.০ / ১১.১ / ১১.২, মানড্রিভা ২০০৭.১ / ২০০৮.০ / ২০০৯.১ / ২০১০.০, ওপেন সোলারিস ২০০৮.০৫ থেকে যেকোনো ভার্সন, সোলারিস ১০।

৪)      ২ জিবি রাম (যত বেশি তত ভাল)

৫)      ২৫৬ এম.বি গ্রাফিক্স (যত বেশি তত ভাল) এবং

৬)     হার্ডডিস্ক লাগবে একটু বিশাল সাইজের। কারণ ভার্চুয়াল পিসির সব ডাটাই আপনার পিসির হার্ডডিস্ক এ জমা হবে।

 

স্টেপস:

১। প্রথমে সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করুন তারপর স্বাভাবিক নিয়মে ইন্সটল করুন।

নিজেই তৈরি করুন ভার্চুয়াল কম্পিউটার! সহজেই।

 

২। ভার্চুয়াল বক্স সফটওয়্যারটি ওপেন করুন।

নিজেই তৈরি করুন ভার্চুয়াল কম্পিউটার! সহজেই।

 

৩। নিউ বাটনে ক্লিক করেন নতুন মেশিন তৈরির কাজ শুরু করুন। (আমি আবারো বলছি, ডুয়াল কোর এর নিচে এগুলো কেউ ট্রাই করবেন না কোর আই সিরিজের পিসি হলে ভাল)

নিজেই তৈরি করুন ভার্চুয়াল কম্পিউটার! সহজেই।

নিউ বাটনে ক্লিক করলে  একটি ডায়ালগ বক্স আসবে। নেক্সট এ ক্লিক করুন।

 

৫। এখন এখানে আপনি কি ধরণের অপারেটিং সিস্টেম ইন্সটল করতে চান তা লিখুন এবং সিস্টেমটির একটি নাম দিন। নেক্সট এ ক্লিক করুন।

নিজেই তৈরি করুন ভার্চুয়াল কম্পিউটার! সহজেই।

 

সাবধান! আপনি যদি ডুয়াল কোর পিসি চালান তবে এক্স.পি সিলেক্ট করুন। উইন্ডোজ ৭ ভার্চূয়াল বক্সে চালাতে হতে কোয়ার্ড কোর পিসি লাগবে।

 

৬। এখন ভার্চূয়াল পিসির রাম এর পরিমাণ কত হবে তা নির্ধারণ করুণ। এখানে যত বেশি রাম দিবেন তত বেশি ভার্চূয়াল পিসির গতি বাড়বে কিন’ আপনার পিসির গতি কমবে। এক্ষেত্রে অবশ্যই আপনার রাম এর অর্ধেক লিখবেন। যেমন ৪জিবি রাম হলে ২০৪৮এমবি লিখবেন।

নিজেই তৈরি করুন ভার্চুয়াল কম্পিউটার! সহজেই।

৭। এখন হলো হার্ডডিস্ক এর পালা। ক্রিয়েট এ নিউ হার্ডডিস্ক এ টিক রেখে নেক্সট এ ক্লিক মারুন।

নিজেই তৈরি করুন ভার্চুয়াল কম্পিউটার! সহজেই।

৮। একটি নতুন ডায়ালগ বক্স আসবে। নেক্সট চাপুন।

৯। এখানে আপনি দুটি অপশন পাবেন ভার্চূয়াল হার্ডডিস্ক তৈরির জন্য। প্রথমটি হলো নরমাল। ভাচূর্য়াল পিসিতে যত পরিমাণ ডাটা ডুকাবেন তত পরিমাণ হার্ডডিস্ক ব্যবহৃত হবে। আর ২য়টি হলো, আপনি নিজে নির্ধারণ করে দিবেন ভাচূর্য়াল হার্ডডিস্ক এর পরিমাণ কত হবে। নেক্সট বাটন চাপুন।

১০। এখানে ভার্চুয়াল হার্ডডিস্কটি কোথায় সেভ করা হবে তা দেখিয়ে দিন এবং হার্ডডিস্ক এর সবোর্চ্চ সাইজ নির্ধারণ করে দিন । নেক্সট চাপুন। দুই বার ফিনিস বাটন এ ক্লিক দিন।

নিজেই তৈরি করুন ভার্চুয়াল কম্পিউটার! সহজেই।

 

১১। এখন দেখুন টিউনার পেজ নামে একটি ভাচূর্য়াল পিসি তৈরি হয়েছে !!!!

নিজেই তৈরি করুন ভার্চুয়াল কম্পিউটার! সহজেই।

 

১২। এখন টিউনারপেজ মেশিনে রাইট ক্লিক করে সেটিংস এ যান।

নিজেই তৈরি করুন ভার্চুয়াল কম্পিউটার! সহজেই।

 

জেনারেল সেটিংস:

এখানে পূর্বে নির্ধারিত মেশিন এর নাম, ওপারেটিং সিস্টেম, কোথায় ফাইল সেভ হবে ইত্যাদি চাইলে পরিবর্তন করতে পারেন।

 

সিস্টেম সেটিংস:

এখানে পুর্বে নির্ধারিত বেইস মেমোরি, বুট অর্ডার, প্রসেসর নির্ধারণ করতে পারেন।

 

ডিসপ্লে সেটিংস:

এখানে আপনার গ্রাফিক্স কার্ড এর উপর ভিত্তি করে ভিডিও মেমোরি নির্ধারণ করুন। অবশ্যই আপনার গ্রাফিক্স মেমোরির অর্ধেক লিখবেন।

 

বাকি সেটিংস গুলো না ধরাই উত্তম। তবে যারা ভার্চূয়াল পিসিতে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট ব্যবহার করবেন তারা নেটওয়ার্ক সেটিং টি নিজের মতো করে সাজিয়ে নিবেন এরপর ওকে তে ক্লিক করুন

 

১৩। এখন মেশিনটি শুরু করুন স্টার্ট বাটনটি চেপে। একদম নতুন পিসি ১ম বার চালানোর মতই কাজ করতে হবে আপনাকে। এখানে আপনার ডিভিডি / কম্বো ড্রাইভ টি সিলেক্ট করুন।

 

১৪। ডিভিডি/কম্বো ড্রাইভ এ উইন্ডোজ সেভেন এর বুটেবল ডিভিডি  প্রবেশ করিয়ে স্বাভাবিক নিয়মে ভাচূর্য়াল পিসি তে উইন্ডোজ ৭ ইন্সটল করুন। এর পর ভার্চূয়াল পিসিকে রিস্টার্ট দিয়ে আপনার ডিসপ্লে,সাউন্ড ইত্যাদির মাদারবোর্ড সিডি টি লাগিয়ে ড্রাইভার ইন্সটল  দিন। (আমার হাতে সময় নেই তাই ইন্সটালেশনটি দেখাতে পারলাম না)

নিজেই তৈরি করুন ভার্চুয়াল কম্পিউটার! সহজেই।

এরপর তৈরি হলে গেল আপনার ভাচূর্য়াল পিসি!

অহেতুক মজা কিংবা দেখি তো কিভাবে এটা করে এইসব মন-মানসিকতা নিয়ে এই সফটওয়্যারটি চালাবেন না। যাদের কাজ আছে/ দরকার আছে তারাই এটা চালাবেন। (আমি নিজেও এটা ব্যবহার করি না)

সফটওয়্যারটির ডাউনলোড লিংক:


Downlaod Links of VirtualBox

আশা করি এই সফটওয়্যারটি আপনাদের ভাল লেগেছে। সামনে আরো মজার মজার সফটওয়্যার নিয়ে আমি গেমওয়ালা হাজির হবো টিউনারপেজ এ-ই। :roll:

:D :D ধন্যবাদ। :D :D

14 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ