ইউটিউব এবং ইনোসেন্স অফ মুসলিম নিয়ে কিছু কথা

8
413

আসসালামু আলাইকুম । সবাই কেমন আছেন? আশা করি আল্লাহর রহমতে ভালোই আছেন । ভালো থাকাটাই সবসময়ের প্রত্যাশা । আমি আইমান । ইতিপূর্বে কম্পিউটার এর ট্রাবলসুটিং বিষয়ে ৪ পর্বের ধারাবাহিক নিয়ে আলোচনা করেছি । “কম্পিউটার স্লো মনে হচ্ছে? এখনি ফাস্ট করে নিন কয়েকটি উপায়ে” শিরোনামে পর্যায়ক্রমে টিউনটি চলমান থাকবে । আমার এর আগের টিউনটি ছিল কম্পিউটারের এডমিনিসট্রেটর পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে কি করবেন এ বিষয়ে সমাধান নিয়ে । সম্প্রতি ইনোসেন্স অফ মুসলিম ছবিতে আমাদের প্রিয় নবী (সা:) কে ব্যঙ্গ করা হয়েছিল । আর এটা নিয়ে সারা বিশ্বে তুমুল আন্দোলন হচ্ছে, বাংলাদেশেও আন্দোলন তীব্রতর হয়ে উঠেছে । এজন্য ইতিমধ্যেই সরকার ইউটিউবকে বন্ধ ঘোষণা করেছে । আমি সেদিনেই এ লিঙ্কে একটা আপডেট দিয়েছিলাম । এ ভিডিও যারা ইউটিউব এ আপলোড করেছে তাদেরকেই সবার আগে ধরা উচিত । তাদের বিরুদ্ধে বেবস্থা নেয়া উচিত। আর বেবস্থা না নিলে মার্কিন বিরোধী আন্দোলন জোরদার করাই শ্রেয় । তার আগে এ ছবির সাথে সংশ্লিষ্ট সবাইকে কঠোর শাস্তি প্রদান করা উচিত । শুধু ইউটিউব বন্ধ করা উপযুক্ত সমাধান হতে পারেনা । মাথা বেথা হলে যেমন মাথা কেটে ফেলা কোনো সমাধানের পর্যায়ে পড়েনা, এখানেও বেপারটি ঠিক তেমনি । একটা গ্লাস এ আমরা পানি খেতে পারি, আবার ঐ গ্লাস টাতেই মদও খেতে পারি, কিন্তু এটার জন্য গ্লাস কোনভাবেই দায়ী নয় । তাই বিরোধিতা করলে আমরা এ ছবির সাথে সংশ্লিষ্ট বেক্তিদেরই বিরোধিতা করতে পারি, আর কারো নয় । এ আন্দোলনের অংশীদার হওয়া আমাদের নৈতিক এবং ঈমানী দায়িত্ব । ইউটিউব বন্ধ করেও লাভ কি হয়েছে, অনেকে সিস্টেম করে ঠিকই ঢুকতে পারছে । যেমন  http://www.youtube.com/ এটা লিখলে বাংলাদেশ থেকে ইউটিউব এ ঢুকা সম্ভব নয় । কিন্তু কেউ যদি http এর পর শুধুমাত্র একটা s বসিয়ে ট্রাই করে ঠিকই ঢুকে যাচ্ছে । তাহলে আর কি হলো ? যে লাউ হেই কদু । মদ খাওয়া অন্যায়, তাই বলে গ্লাস ভেঙ্গে ফেলবেন তাই বলে গ্লাস ভেঙ্গে ফেলবেন ? মাথা বেথা করছে, কেটে ফেলবেন কি মাথা , তাই বলে কেটে ফেলবেন কি মাথা তাই বলেকি মাথা কেটে ফেলবেন ? আল্লাহ আমাদের বুঝার তাওফিক দান করুক, আমীন। সবাই ভালো থাকবেন, খুব শীঘ্রই আরো একটা মেগা টিউন করব, সেজন্য এ টিউন আর দীর্ঘায়িত করলাম না। করলাম না । ধন্যবাদ । আজ আমার ব্লগ এ ঘুরে আসতে বলবনা । ফ্রেন্ড রেকুএস্ট পাঠাতে পারেন আমার ফেসবুকে

8 মন্তব্য

  1. ভাই, আমিতো আগেই বলেছি যারা এ ভিডিওর সাথে সম্পৃক্ত তাদের ধরা উচিত, আর তাদের ধরলেই ভিডিও রিমুভ করাও সম্ভব, একজন রিমুভ করবে আরেকজন যদি আবার আপলোড করে । তাই এটা রিমুভ করার পক্ষে আমাদের সবসময় অটল থাকতে হবে, এটা আমাদের নৈতিক ও ঈমানী দায়িত্ব, যা না করলে আমাদের ঈমান থাকবেনা ।

একটি উত্তর ত্যাগ