সবার জন্য কম্পিউটার ও ইন্টারনেটের কয়েকটি টিপস! (প্রথম পর্ব)

7
442

সবাই কেমন আছেন? আশা করি ভালই! :)

ঈদের পর আবার ফিরে এলাম আপনাদের মাঝে! টেনশন নিয়েন না! আপনাদের ঈদ মোবারক আমি ফ্রিজে রেখে দিয়েছিলাম, এখনও তাজা আছে, সুতরাং নিয়ে নিন আমার তরফ থেকে একটা বিরাট-

 

“ঈদ মোবারক” :D

 

সবাই জানেন আমি সাধারণত গেমিং রিভিউ নিয়ে পোষ্ট করি। এছাড়া সফটওয়্যার আর প্রোগ্রামিং নিয়ে মাঝে মাঝে পোষ্ট করি। আজকে আমি আপনাদের সাথে কম্পিউটার ও ইন্টারনেটের কিছু ট্রিকস ও টিপস শেয়ার করব। চলুন জেনে নেয়া যাক! :)

 

সবার জন্য কম্পিউটার ও ইন্টারনেটের কয়েকটি টিপস! (প্রথম পর্ব)

 

 

1. Windows 7 ও Windows Vista তে ফিরিয়ে আনুন আপনার Run কমান্ড :

আপনারা যারা Windows 7 বা Windows Vista ব্যবহার করেন তারা জানেন যে এই অপারেটিং সিস্টেমগুলোর স্টার্ট মেনুতে রান কমান্ড দেয়া থাকে না। তাই যদি কেউ আপনার স্টার্ট মেনুতে Run কমান্ড ফিরিয়ে আনতে চান তাহলে স্টার্ট বাটনের ওপর রাইট বাটন ক্লিক করে Properties-এ ক্লিক করুন। এবার Taskbar and Start Menu Properties খুলবে। এখান থেকে থেকে Start Menu নামক ট্যাবে ক্লিক করুন। তারপর Customize বাটনে ক্লিক করুন। এবার Customize Start Menu নামে নতুন আরেকটি উইন্ডো খুলবে। এখানে Run Command নামক চেক বক্সটা খুঁজে বের করুন। বক্সটিতে চেক করে OK দিন। এখন স্ট্যার্ট মেন্যুতে রান কমান্ড পাওয়া যাবে।

 

 

2. ফেসবুক অ্যাকাউন্ট এর নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন :

আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট কি নিরাপদ? তা জানার জন্য প্রথমে এই ঠিকানায় যান। সেখানে গেলেই বুঝতে পারবেন, আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টের বর্তমান নিরাপত্তাব্যবস্থা কতটুকু। নিরাপত্তাব্যবস্থা বাড়ানোর জন্য সেখানে তিনটি স্টেপ আছে।

পদ্ধতি-১ : এখানে একাধিক ই-মেইল আইডি যোগ করুন। তারপর Next-এ ক্লিক করুন।

পদ্ধতি-২ : এখানে আপনার মোবাইল নম্বর যোগ করুন। আবার Next-এ ক্লিক করুন।

পদ্ধতি-৩ : এখানে নিরাপত্তার প্রশ্ন যোগ করুন।

এখন ওপরে ডান পাশে Home-এর পাশে অ্যারোতে ক্লিক করে Account Settings-এ ক্লিক করুন বা সরাসরি এই ঠিকানায় যান। এখন বাম পাশ থেকে Security-তে ক্লিক করুন। Login notifications-এর ডানপাশ থেকে edit-এ ক্লিক করুন। এখন টেক্সটবক্স দুটিতে টিক চিহ্ন দিয়ে Save Changes-এ ক্লিক করুন। এখন ফেসবুক লগআউট করে আবার ফেসবুকে লগইন করুন। দেখবেন Name New Device নামে একটি পেইজ এসেছে। সেখানে Device name বক্সে কোনো নাম লিখে Save Device-এ ক্লিক করুন। এখন থেকে প্রত্যেকবার আপনার ফেসবুক আইডিতে লগইন করার সময় আপনার ই-মেইল ঠিকানায় এবং মোবাইল নম্বরে একটি মেসেজ যাবে এবং তাতে লেখা থাকবে কখন, কী নাম দিয়ে, কোন আইপি ঠিকানা থেকে আপনার ফেসবুক আইডিতে প্রবেশ করা হয়েছে।
আপনি যদি এই নাম দিয়ে এই সময় প্রবেশ না করে থাকেন, তাহলে সঙ্গে সঙ্গে আপনার ফেসবুকের পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করে ফেলুন। মনে রাখবেন, হ্যাকাররা প্রথমে ই-মেইল আইডি হ্যাক করার চেষ্টা করে। ই-মেইল আইডি হ্যাক করতে পারলে খুব সহজে ফেসবুক আইডিও নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসতে পারে। ওপরের পন্থাগুলো অবলম্বন করলে আপনার ফেসবুক আইডি হ্যাকড হলেও পুনরুদ্ধার করতে পারবেন। এমনকি আপনার সব কটি ই-মেইল আইডি হ্যাকড হলেও বা আপনার ফেসবুকের ই-মেইল আইডি পরিবর্তন করে ফেললেও মোবাইল নম্বর নিয়ে তা পুনরুদ্ধার করতে পারবেন।

 

 

3. আপনার ফেসবুকের তথ্যের ব্যাকআপ রাখুন কম্পিউটারে :

আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট যদি হ্যাকড বা চুরি হয়ে যায় অথবা কোনো কারণে নষ্ট হয়ে যায়, তাহলে যাতে কোনো তথ্য না হারাতে হয়, এ জন্য ফেসবুকের তথ্যগুলো আপনার কম্পিউটারে জমা করে রাখতে পারেন। ফেসবুকের তথ্যগুলো জমা রাখার জন্য প্রথমে ফেসবুকে লগইন করে ওপরে ডান পাশে Home-এর পাশে অ্যারোতে ক্লিক করে Account Settings-এ ক্লিক করুন বা সরাসরি এই ঠিকানায় যান। এখন সবার নিচে Download a copy-তে ক্লিক করুন। নতুন পেজ এলে Start My Archive বাটনে ক্লিক করুন। আবার Start My Archive বাটনে ক্লিক করে তারপর Confirm-এ ক্লিক করুন। এখন আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টের একটি ডাউনলোড কপি তৈরি হতে থাকবে। ডাউনলোড কপি তৈরি হয়ে গেলে আপনার ই-মেইল ঠিকানায় একটি মেইল যাবে। তারপর আবার Home-এর পাশে অ্যারোতে ক্লিক করে Account Settings-এ ক্লিক করুন। নতুন পেজ ওপেন হলে নিচে Download-এ ক্লিক করলে আপনার ফেসবুকের ব্যাকআপ প্রোফাইলটি ডাউনলোড হয়ে যাবে। ডাউনলোড সম্পন্ন হওয়ার পর জিপ ফাইলটি আনজিপ করুন।
এখন index ফাইলটি ওপেন করলে আপনি আপনার ফেসবুকের পুরো প্রোফাইল (ছবি, ওয়াল, মেসেজ, ফ্রেন্ড ইত্যাদি) দেখতে পাবেন।

 

 

4. ইন্টারনেটের সাংকেতিক বার্তার অর্থ :

ইন্টারনেট ব্যবহারের সময় মাঝে মাঝে কিছু লেখা আসে। চলুন দেখা যাক এগুলোর মানে কি-

i) 403 Forbidden : সার্ভার অনুরোধ গ্রহণ করেনি।
ii) 400 Bad Request : অনুরোধ কার্য যথাযথ প্রক্রিয়ায় হয়নি।
iii) 404 Not Found : বর্তমানে পাওয়া যাচ্ছে না, তবে পরে পাওয়া যেতে পারে।
iv) 403 Forbidden : সার্ভার অনুরোধ গ্রহণ করেনি।

 

 

5. মুঠোফোনে ইন্টারনেটের গতি কত, জেনে নিন :

আপনি হয়তো স্মার্টফোনে ইন্টারনেট ব্যবহার করেন। এখন জানতে চাইছেন মুঠোফোনে যে কোম্পানির ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করছেন, তারা আপনাকে কত গতি দিচ্ছে? এটা জানা যাবে বেশ সহজেই। এ জন্য আপনাকে ‘স্পিড টেস্ট’ নামের একটি ছোট্ট সফটওয়্যার ব্যবহার করতে হবে।
এটি অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস (আইফোন অপারেটিং সিস্টেম) অপারেটিং সিস্টেমে কাজ করে। এটি বিনা মূল্যে নামিয়ে নেওয়া যাবে এই ঠিকানা থেকে। অ্যান্ড্রয়েডের ক্ষেত্রে এর আকার ১ মেগাবাইট, আর আইফোনে ৯.৮ মেগাবাইট। ডাউনলোড ও আপলোডের গতি আলাদাভাবে দেখার সুবিধা রয়েছে এতে।

 

এই ছিল আজকে আপনাদের জন্য টিপস। আগামীতে নতুন কিছু নিয়ে হাজির হব! সেই পর্যন্ত ভালো থাকুন আর ভালো রাখুন আপনার পাশের মানুষটিকে! :) :)

সবাইকে ধন্যবাদ! :)