paypal থেকে তাকা উত্তোলনের বিকল্প ও সহজ উপায়

2
1514

গেটাফ্রিল্যান্সার, ওডেস্ক, জুমল্যান্সার সহ অনেক ফ্রিল্যান্সিং সাইটের নাম আমরা ইতিমধ্যেই শুনেছি। এসব সাইট থেকে ভাল পরিমান অর্থ উপার্জন করেছেন এমন লোকের সংখ্যাও এখন অনেক। বিদেশের কাজ দেশের মাটিতে বসে করে বৈদেশিক মুদ্রা অর্থাৎ ডলার উপার্জন করার মজাই আলাদা। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে এখনো টাকা তোলার ব্যাপারে মাঝে মধ্যে সমস্যায় পড়তে হয়। কেননা কিছু কিছু বায়ার কিংবা ফ্রিলান্সিং এর মাধ্যমে কাজ করিয়ে নেয় এমন প্রতিষ্ঠানগুলো টাকা পরিশোধ করতে চায় পেপাল এর মাধ্যমে যা বাংলাদেশে এখনও সাপোর্ট করছে না । বাংলাদেশে পেপাল সিষ্টেম চালু করার জন্য বেশ কয়েকবার আলোচনা হয়েছিল সরকার, বাংলাদেশ ব্যাংক এবং বাংলাদেশের কম্পিউটার বিশেষজ্ঞদের সাথে, কিন্তু দু:খের বিষয় হলেও সত্যি যে, এখনো বাংলাদেশ ব্যাংক এ ব্যাপারে কোন সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি। আর এ কারনে বাংলাদেশী ফ্রিল্যান্সাররা পেপাল এর মাধ্যমে পেমেন্ট হলে সেটি এড়িয়ে যেতেন।

paypal থেকে তাকা উত্তোলনের বিকল্প ও সহজ উপায়

তবে সেই সকল সমস্যার কিছুটা হলেও সমাধান করেছে paypalbd.com নামে একটি প্রতিষ্ঠান । তারা পেপাল থেকে টাকা তোলার ব্যাপারে বেশ সহযোগিতা করে থাকে। তাদের ওয়েব সাইট থেকে জানা গেছে অষ্ট্রেলিয়াতে তাদের প্রধান কার্যালয় এবং রাজধানীর এলিফেন্ট রোডে তাদের বাংলাদেশী অফিস। আমরা সাইট কর্তৃপক্ষের সাথে মোবাইলের মাধ্যমে যোগাযোগ করে সত্যতা যাচাই করেছি। তারা বলেছে ইতিমধ্যেই তাদের কাছ থেকে বাংলাদেশী ফ্রিল্যান্সাররা প্রতিদিন পেমেন্ট গ্রহন করছেন বিনিময়ে তারা নিচ্ছেন কিছু কমিশন। তাদের বক্তব্য অনুযায়ী এ ধরনের প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশে এটাই প্রথম। সাইটটির ঠিকানা হচ্ছে http://paypalbd.com

উপরের ঠিকানা থেকে আপনারা বিস্তারিত জেনে নিতে পারবেন। তারপরেও দু-একটি সুবিধা সম্পর্কে বলছি যা তারা প্রদান করে থাকে……..

*** এ সাইটের কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে আপনি বিদেশ থেকে যে কোন কিছু কিনতে বা বিক্রি করতে পারবেন।

*** ফ্রিল্যান্সিং এর মাধ্যমে যারা কাজ করেন এবং পেপাল এর মাধ্যমে টাকা পেতে যাদের সমস্যা তাদের টাকা উত্তোলনে সহযোগিতা করা হয়ে থাকে।

*** পেপাল এর মাধ্যমে কাউকে টাকা পরিশোধ করার ব্যবস্থাও করেছে সাইট কর্তৃপক্ষ।

যাহা দরকার:

*** তিন ধরনের রেজিষ্টার্ড মেম্বার হওয়ার সুযোগ আছে যাহা তাদের সাইট থেকে জানতে পারবেন।

*** এই সাইটে রেজিষ্ট্রেশন করে বার্ষিক সদস্য ফি ২০০-৫০০ টাকার বিনিময়ে তাদের অফিসে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দিয়ে একাউন্টটি এ্যাকটিভ করতে হবে।

*** প্রয়োজনীয় কাগজপত্র বলতে দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি, ভোটার আইডি কার্ড এর ফটোকপি ইত্যাদি

*** এরপর তারা আপনাকে একটি ইমেইল ঠিকানা দিবে যেটি আপনি বায়ারকে প্রদান করলে বায়ার ঐ ঠিকানায় পেপাল এর টাকা পাঠাবে।

*** প্রতিবার পেপাল থেকে টাকা উত্তোলন করতে উত্তোলিত টাকার উপরে ৫%-১০% চার্জ দিতে হবে।

যেহেতু বাংলাদেশে এখনো পেপাল চালু হয়নি তাই এটি হতে পারে বাংলাদেশীদের জন্য পেপাল থেকে টাকা তোলার একটি বিকল্প ব্যবস্থা।

2 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ