সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫

8
1420
এটি 8 পর্বের সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং সিরিজ টিউনের 7 তম পর্ব
“বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম”

আজ অনেক দিন পর হাজির হলাম আপনাদের সকলের প্রিয় টিউটোরিয়াল সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়ালঃ পর্ব- ৫ । আপনারা সকলে কেমন আছেন । নিশ্চয় ভাল ? আপনারা ভাল থাকুন আর নাই বা থাকুন আমি কিন্তু ভালোই আছি আপনাদের দোয়ায় । আপনারা নিশ্চয় আমার আগের টিউন গুলো পড়েছেন । যদি না পড়ে থাকলে কিন্তু বিশাল মিস করেছেন । তাই আমার আগের টিউন গুলো পড়ে নিন তাড়াতাড়ি  দেরি না করে ।

সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫

 

সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল

সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫

সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫

নেটওয়ার্ক মডেল সমূহ


 

কম্পিউটার নেটওয়ার্কিং প্রযুক্তির ক্রমান্বয়ে ব্যাপক প্রসারতার কারনে এক সার্বজনীন স্বীকৃত রূপ দিতে একটি সুনির্দিষ্ট স্ট্যান্ডাড বা মডেল নির্ধারণের প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয় । আর এ ধরনের উপলব্ধি থেকেই বেশ কিছু নেটওয়ার্ক মডেল তৈরি হয় । আজ আমরা সেসকল নেটওয়ার্ক মডেল সমূহ নিয়ে আলোচনা করবো ।

ওএসআই মডেল(OSI Model)

সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫

ওএসআই বা ওপেন সিস্টেম ইন্টারকানেকশন নামক সাত স্তরের নেটওয়ার্ক মডেলের উন্নয়ন ঘটেছে আই এস ও এর হাতে। আই এস ও মূলত কোন এব্রিয়েসন না , এটি একটি গ্রিক শব্দ যার অর্থ হচ্ছে সমতা(Equal)

সাত স্তরবিশিষ্ট নেটওয়ার্ক মডেল তৈরির পিছনে আই এসও”র যে উদ্দেশ্যটি কাজ করেছে তাহলো এমন একটি ফ্রেমওয়ার্ক তৈরি করা যার মধ্যে প্রধান নেটওয়ার্ক হার্ডওয়্যার এবং সফটওয়্যার কম্পোনেন্ট এবং প্রোটোকলসমূহ একটি সাধারন রেফারেন্স পয়েন্ট হিসেবে কাজ করবে । আর এই কমন নেটওয়ার্ক ফ্রেমওয়ার্কের জন্যই বিভিন্ন কোম্পানি কতৃক নির্মিত নেটওয়ার্ক হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার সমূহ একে অপরের সাথে কমিউনিকেসন বা যোগাযোগ করতে সক্ষম হচ্ছে । কম্পিউটার নেটওয়ার্কের পুরো বিষয় অনুধাবন করতে হলে ও এস আই মডেল সম্পর্কে একটি পরিষ্কার ধারনা থাকতে হবে ।

ও এস আই মডেম সাতটি স্তর নিয়ে গঠিত হয় । আসুন এইবার ও এস আই মডেলের প্রত্যেকটি স্তরের কিছুটা বিবরণ জানিঃ

সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫

ফিজিক্যাল 

এ স্তরটি ডেটা বিটস (০ও ১ সমষ্টি ) এক পিসি থেকে অন্য পিসিতে প্রেরনের কাজটি করে থাকে । এ কাজটি করার জন্য যে সকল জড়িত তাহলো হাব/ সুইচ ,রিপিটার , ক্যাবল , কানেক্টর ,ট্রান্সমিটার ইত্যাদি । ও এস আই মডেলের ফিজিক্যাল স্তর দুটি  মৌলিক প্রকৃতির সংযোগ প্রদানের কাজ করে । এর একটি হচ্ছে পয়েন্ট টু পয়েন্ট অন্যটি মাল্টিপয়েন্ট ।

ফিজিক্যাল লেয়ারে যে সকল ডিভাইস যুক্ত সেগুলো হচ্ছে মিডিয়া বা ক্যাবল , কানেক্টর , ইলেকট্রিক্যাল সিগন্যাল ইত্যাদি ।

সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫

ডেটালিংক

ডেটা লিংক স্তরটি দুটো উপস্তরে বিভক্ত । এর একটি হচ্ছে এল এল সি( LLC – LogicalLink Control )  , অন্যটি ম্যাক ( MAC- Media Access Control) এল এল সি নেটওয়ার্ক ডিভাইসসমূহের মধ্যে সংযোগ স্থাপন এবং তা রক্ষা করা । ডেটা ফ্রেমের ত্রুটি সংশোধন এবং হার্ড ওয়্যার এড্রেস নির্ধারণের জন্যও এ উপস্তরটি দায়িত্ব প্রাপ্ত । 

ডেটা লিংক দু- স্তর । যথাঃ

  • কনটেনশন
  • টোকেন পাসিং 

ডেটা লিংক ডেটা প্যাকেট তৈরি এবং ফিজিক্যাল লেয়ারের ডিভাইসসমূহ স্থাপনের জন্য যাবতীয় কার্যাবলী সম্পাদন করে থাকে !

ওএসআই মডেলের এর দ্বিতীয় স্তর অর্থাৎ ডেটা লিংকে যে সকল ডিভাইস কাজ করে তা সুইচ , ব্রিজ , বুদ্ধিমান হাব ইত্যাদি ।

সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫

নেটওয়ার্ক  

ওএসআই মডেলের একটি গুরুত্ব পূর্ণ স্তর ! নেটওয়ার্ক স্তর নেটওয়ার্ক স্তর ডেটা প্যাকেট রাউটিং এর সিদ্ধান্ত সমূহ নিয়ে থাকে এবং ডেটা প্যাকেটকে টার্গেট বা গন্তব্য ডিভাইসের আগ্রাহন করে । যে সকল ডিভাইস এ সকল স্তরে কাজ তাহল রাউটার , ব্রাউটার , গেটওয়ে ইত্যাদি । 

সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫

ট্রান্সপোর্ট 

ট্রান্সপোর্ট স্তরের কাজ হচ্ছে নির্ভুল ভাবে ডেটা প্যাকেট সরবরাহ করা ।এছাড়া ডেটা প্যাকেটের সঠিক ক্রম নিয়ন্ত্রন ,ডেটা উপস্থিত নিশ্চিত করা বা ডেটা ডুপ্লিকেসন রোধ ইত্যাদি কাজ এ স্তরে সম্পন্ন হয় প্রেরিতব্য ডেটা যদি অনুমোদিত প্যাকেটের তুলনায় বড় হয় তবে ট্রান্সপোর্ট লেয়ার ঐ ডেটা কে ভেংগে সহজে ম্যানেজ করা যায় এমন ছোট আকারের খণ্ডে বিভক্ত করে এবং দু – বা ততাধিক প্যাকেটে স্থাপন করে।

সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫

সেশন

এ স্তরের কাজ হচ্ছে নেটওয়ার্ক ভুক্ত ভিন্ন কোন পিসি”র আপ্লিকেশন প্রোগ্রামকে হোস্ট কম্পিউটার শেয়ারের অনুমতি দেয় । অর্থাৎ এটি সেশন বা ডেটা কানেকশন সেটআপ , ব্যবস্থাপনা এবং টার্মিনেশন এর কাজ করে । এ ধরনের সেশনের জন্যই নেটওয়ার্ক ভুক্ত সিস্টেম একে অপরের ডেটা আদান প্রদানে সক্ষম হয় । এ স্তরের অ্যাপ্লিকেশন হচ্ছে ইন্টারফেস গেটওয়ে ইত্যাদি ।

সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫

প্রেজেন্টেশন

প্রেজেন্টেশন লেয়ার মূলত ডেটা ফরম্যাট পরিবর্তন করে । নেটওয়ার্ক ডেটা ফরম্যাট পিসির ডেটা ফরম্যাট থেকে আলাদা হতে পারে । নেটওয়ার্ক ও পিসির চাহিদা মোতাবেক এই লেয়ারটি ফরম্যাট পরিবর্তন করে থাকে । সেশন লেয়ারের মত এখানেও অ্যাপ্লিকেশন ইন্টারফেস , গেটওয়ে ইত্যাদি ডিভাইস কাজ করে । 

সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫

এপ্লিকেশন

এপ্লিকেশন স্তরের কর্মকাণ্ড নেটওয়ার্কে অনেক খানি দৃশ্যমান । এপ্লিকেশনের কাজ হচ্ছে ব্যবহারকারির নেটওয়ার্ক সরাসরি সাপোর্ট করে এমন সব প্রয়োজনীয় সার্ভিস প্রদান করা । যেমন – ডেটাবেস আক্সেস , ইমেল , ফাইল ট্রান্সফার ইত্যাদি ।এ লেয়ারটি সফটওয়্যার রি- ডাইরেক্টর ও শেয়ারড নেটওয়ার্ক রিসোর্স চিহ্নিত করনের কাজ করে । এছাড়া কতিপয় অন্তত্য প্রয়োজনিয় নেটওয়ার্ক সার্ভিস যেমন লগিন অথেনটিকেশন এ লেয়ারটি প্রদান করে থাকে । সেশন ও প্রেজেন্টেশনের ডিভাইস গুলো এই স্তরে কাজ করে থাকে । 

নেটওয়ার্ক লেয়ারের মধ্য দিয়ে ডেটা প্যাকেট চলাচলের পদ্ধতি colorful butterfly সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫colorful butterfly সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫colorful butterfly সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫


নেটওয়ার্ক ডেটা বিনিময়ের জন্য প্রতিটি ডিভাইস বা কম্পিউটারের একটি স্বতন্ত্র নেটওয়ার্ক এড্রেস থাকতে হয় । এর ফলে নেটওয়ার্ক ট্যাগকৃত প্রাপক কম্পিউটারে ডেটা পৌছে দিতে সক্ষম হয় । এপ্লিকেশন সমূহে আলাদা আলাদা এড্রেস থাকার জন্যই আইএসও মডেলের ট্রান্সপোর্ট লেয়ার একই সময়ে একাধিক এপ্লিকেশন সাপোর্ট করতে সক্ষম হয় ।

নেটওয়ার্কের বিভিন্ন লেয়ারের মধ্য দিয়ে ডেটা বিনিময়ের বিষয়টি সহজে বুঝার জন্য আইএসও বা ওআইএস মডেলকে তিন ভাগে ভাগ করা হয় ।যথাঃ

       ╬╬  এপ্লিকেশন লেয়ার 

   ╬╬ ট্রান্সপোর্ট লেয়ার

                   ╬╬নেটওয়ার্ক একসেস লেয়ার  

আসুন তাহলে একটি উদাহরণ দিয়ে শিখা যাকঃ

X কম্পিউটারের কোন এপ্লিকেশন Y কম্পিউটারে কিছু ডেটা পাঠাতে  চায় । এক্ষেত্রে X কম্পিউটার ডেটা প্যাকেটটি ট্রান্সপোর্ট লেয়ারে পাঠাবে । X কম্পিউটার স্থে সাথে একটি নির্দেশ  দিয়ে দিবে যেন ডেটা প্যাকেটটি Y কম্পিউটারের সংশ্লিষ্ট এপ্লিকেশনে জমা দেয়া হয় । ট্রান্সপোর্ট লেয়ার ডেটা প্যাকেটটিকে নির্দেশনা সহ নেটওয়ার্ক একসেস লেয়ারের নিকট হস্তান্তর করে । নেটওয়ার্ক একসেস লেয়ার ঐ ডেটা প্যাকেটের সাথে আরো একটি নির্দেশনা যোগ করে এই মর্মে যেন কমিনেকেসন নেটওয়ার্ক  ডেটা প্যাকেটটি  Y কম্পিউটারের নিকট পৌছে দেয় । নেটওয়ার্ক প্যাকেট ঠিকমতো প্রাপক কম্পিউটারের নিকট পৌছানোর জন্য  নেটওয়ার্ক শুধু প্রাপক কম্পিউটারের এড্রেস জানলেই হবে । আর কোন বিস্তারিতর প্রয়োজন হয় না । 

সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫

এক কম্পিউটার থেকে অন্য কম্পিউটারে ডেটা প্রেরনের ক্ষেত্রে প্যাকেটের সাথে কন্ট্রোল সিগন্যাল ও পাঠাতে হয় । আসুন দেখা যাক কি ভাবে পাঠাতে হয় ।

সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫

X কম্পিউটারের কোন এপ্লিকেশন প্রোগ্রাম একটি ডেটা প্যাকেট Y কম্পিউটারে পাঠানোর জন্য উৎপন্ন করে ট্রান্সপোর্ট লেয়ারে আগ্রায়ন করেছে ।   কম্পিউটার ট্রান্সপোর্ট লেয়ার ডেটা প্যাকেটটিকে আরো সুস্থ ব্যবস্থাপনার জন্য একে কয়েকটি খণ্ডে বিভক্ত করবে ।ডেটা প্যাকেটের প্রতিটি খণ্ডে ট্রান্সপোর্ট লেয়ার ট্রান্সপোর্ট হেডার যোগ করবে ।ট্রান্সপোর্ট হেডারের মধ্যে প্রটোকল সম্পর্কিত তথ্য থাকবে ।   ডেটা প্যাকেট যখন ট্রান্সপোর্ট লেয়ার থাকে নেটওয়ার্ক একসেস লেয়ারে পৌছাবে তখন নেটওয়ার্ক একসেস লেয়ার ট্রান্সপোর্ট লেয়ারের মত ঠিক একই ভাবে নেটওয়ার্ক হেডার যোগ করবে । নেটওয়ার্ক লেয়ার ডেটা প্যাকেটটি নেটওয়ার্ক  একসেস পিডিইউ নামে পরিচিত । ডেটা প্যাকেটটি যখন Y কম্পিউটারের  নেটওয়ার্ক একসেস লেয়ার থেকে  ট্রান্সপোর্ট লেয়ারে যাবে তখন ট্রান্সপোর্ট লেয়ার হেডারটি বর্জন করবে ।আবার যখন Y কম্পিউটারের  নেটওয়ার্ক ট্রান্সপোর্ট লেয়ার থেকেএপ্লিকেশন লেয়ারে যাবে তখন এপ্লিকেশন  লেয়ার হেডারটি বর্জন করবে । এ প্রক্রিয়ায় X কম্পিউটারের কোন এপ্লিকেশন থেকে Y কম্পিউটারের টার্গেট এপ্লিকেশনে ডেটা প্যাকেটটি পৌছে  যাবে ।

 

সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫

ডিপার্টমেন্ট অফ ডিফেন্স বা ডড মডেলValentine's Day and mail সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫Valentine's Day and mail সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫Valentine's Day and mail সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫Valentine's Day and mail সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫


 

এর আগে আমরা দেখেছি ওআইএস মডেলের নেটওয়ার্ক  স্তর  মোট সাতটি । কিন্তু ডড মডেলে স্তর আছে চারটি । ওআইএস মডেলের সাতটি স্তরকে পুনর্গঠন করেই ডড মডেলের চারটি স্তর তৈরি করা হয়েছে । দুটি মডেলকে তুলনা করলে এদের পার্থক্য স্পষ্ট হয়ে যাবে। 

ডড  মডেলের নেটওয়ার্ক একসেস স্তর ওআইএস  মডেলের নেটওয়ার্ক একসেস স্তর  ওআইএস মডেলের ফিজিক্যাল ও ডেটালিংক স্তর দুটি প্রতিস্থাপন করেছে ।নেটওয়ার্ক একসেস স্তরের প্রধান কাজ হচ্ছে ডেটা ম্যাধমকে চিহ্নিত করা , ডেটা ফার্মিং এবং নেটওয়ার্ক যোগাযোগ স্থাপন করা । ওআইএস মডেলের নেটওয়ার্ক স্তরটি ডড মডেলে অনুপস্থিত । ডড মডেলে ইন্টারনেট রাউটিং  এর কাজ সম্পন্ন হয় ।

হোস্ট টু হোস্ট   স্তরটি নেটওয়ার্কের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে ডেটা ফ্লো  নিয়ন্ত্রন করে । এ স্তরটি ডিভাইস সমূহ খুজে বের থাকে ।এছাড়া লেয়ারে উচ্চ পর্যায়ের সংযোগ প্রদান করে থাকে । হোস্ট টু হোস্ট ডেটা প্যাকেট সেগমেন্ট উন্নয়নের কাজটিও এখানে সম্পন্ন হয় । 

ডড মডেলের সর্ব শেষ স্তর হচ্ছে প্রসেস স্তর । প্রসেস স্তরটি ওএসআই মডেলের সেশন , প্রেজেন্টেশন এবং এপ্লিকেশন এ সবগুলো স্তরে কাজ করে । এখানে উল্লেখ্য  করা প্রয়োজন যে টিসিপি/ আই পি প্রোটোকল সাধারণত ডড মডেল অনুযায়ী কাজ করে । 

 

 এনডিআইএস এবং ওডিআই স্ট্যান্ডার্ড Stickman and bill সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫Stickman and bill সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫Stickman and bill সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫Stickman and bill সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫


নেটওয়ার্কভুক্ত পিসি ব্যবহারকারীরা যা আশা করেন তাহলো তাদের পিসিতেঁ  যেন একাধিক প্রোটোকল লোড করা থাকে যদিও  কোন কোন ক্ষেত্রে ঐ পিসিতে নেটওয়ার্ক ইন্টারফেস কার্ড বা নিক মাত্র একটি থাকে । একাধিক প্রোটোকল ইন্সটল থাকলে ইউজাররা  নেটওয়ার্কে বিভিন্ন প্রকারের নেটওয়ার্ক কার্ড ব্যবহার করতে সক্ষম হয় । এই সমস্যা সমাধানের জন্য ব্যবহার করতে হয় ড্রাইভার ইন্টারফেস । যেমনঃ NDIS ( NETWORK DRIVER INTERFACE STANDARD) এবং ODI ( OPEN DATE LINK INTERFACE)

আজ এই পর্যন্তই ।আজ এর নয় আবার দেখা হবে আগামীতে ।একটি কথা অবশ্যই মনে রাখবেন যে নিজে শিখুন এবং অন্যকে শিখতে সহয়তা করুন ।আপনি চিন্তা করে দেখুন এমন অনেক কিছু আছে জা আপনি জানেন কিন্তু অনেকেই জানে না । তাই আমাদের শিখতে এবং শিখাতে সহয়তা করুন ।

সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫

ও ও ও আপনাদের তোঁ বলতেই ভুলে গিয়েছিলাম শুরু হয়েছে আমাদের ব্লগিং  হাঙ্গামা  বিস্তারিত জানতে ইচ্ছা করছে  আসুন জেনে নেইঃ 

free pen driver ব্লগিং হাঙ্গামা   দৌড়ের উপর থাকো প্রযুক্তির ব্লগ লিখো [তিন মাস টিউনারপেজে প্রযুক্তির ব্লগ লিখে এবং মন্তব্য করে জিতে নাও ২৪টি ৮জিবি পেন ড্রাইভ] সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫

 

ব্লগিং হাঙ্গামা – দৌড়ের উপর থাকো প্রযুক্তির ব্লগ লিখো [তিন মাস টিউনারপেজে প্রযুক্তির ব্লগ লিখে এবং মন্তব্য করে জিতে নাও ২৪টি ৮জিবি পেন ড্রাইভ]
আরো বিস্তারিত দেখো এখানেঃ- http://www.tunerpage.com/archives/116882

আগামী ১লা জুলাই থেকে ৩০শে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মোট ৩ মাস এই ব্লগিং কন্টেস্ট চলবে। বাংলা ভাষায় আইটি বিষয়ক আরো লেখক তৈরী করার লক্ষ্যে আমাদের এই উদ্যোগ। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি কে সকলের কাছে আরো উন্মুক্ত করে তুলতে আমাদের ছোট আরেকটি চেষ্টা মাত্র এটি। টিউনারপেজে প্রযুক্তির ব্লগ লিখে এবং মন্তব্য করে জিতে নাও ৮টি ৮জিবি পেন ড্রাইভ প্রতি মাসে। ৩ মাসে মোট ২৪টি পেন ড্রাইভ পাচ্ছ তোমরা।

আমরা আছি সোশিয়াল নেটওয়ার্কেFree avatars সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫ Free avatars সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫Free avatars সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫Flying heart with wings সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫


আপনি যদি চান যখনি কোন পোস্ট ব্লগে পোস্ট হবে তখনি পোস্ট এর খবর ফেসবুকে অথবা টুইটারে বসে বসে পাবেন তাহলে যোগ দিন আমাদের সোশ্যাল নেটওয়ার্কে।

facebook linkedin job find 0 টিউনারপেজ হটসিটঃপর্ব চার! আজকের অতিথি TJ “ চিন্তিত পথিক” সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল :পর্ব -৫

 

Series Navigation << সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং (NETWORKING) পর্ব- ৪সহজ বাংলায় নেটওয়ার্কিং ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল (নেটওয়ার্ক মডেল): পর্ব- ৬ >>

8 মন্তব্য

একটি উত্তর ত্যাগ